দুর্গা পুজো দখল করার চেষ্টা করছে বিজেপি। কলকাতার কয়েকটি নামী পুজো কমিটির সঙ্গে নাকি তাদের কথাও চলছে। শুধু তাই নয়, অমিত শাহ, নরেন্দ্র মোদীদের হাত দিয়ে পুজোর উদ্বোধন করাতেও নাকি মরিয়া কলকাতার অনেক বড় পুজোর উদ্যোক্তারা, বিজেপি নেতাদের দাবি এমনই। 

আরও পড়ুন- হরিদেবপুর ৪১ পল্লীতে 'আগন্তুক'! শুরু হয়ে গেল পুজোর প্রস্তুতি

কলকাতার নামী অধিকাংশ পুজোর মাথাতেই রয়েছেন তৃণমূলের নেতা, মন্ত্রী বা বিধায়করা। নামী অনেক পুজো কমিটির সঙ্গেই বিজেপি-র যোগাযোগের কথা বলে সোশ্যাল মিডিয়া বা সংবাদমাধ্যমে প্রচার চলছে। বিজেপি ছোঁয়া এড়াতে মরিয়া কলকাতার একটি নামী পুজো কমিটি এবার রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠক করে নিজেদের অরাজনৈতিক অবস্থান স্পষ্ট করল। শুধু তাই নয়, এর পর আর এমন খবর রটালে আইনি ব্যবস্থার হুমকি দিলেন পুজোর উদ্যোক্তারা। 

বেহালার বড়িশা সর্বজনীন পুজো কমিটির পক্ষ থেকে এ দিন এমনই দাবি করা হয়। পুজোর উদ্যোক্তাদের অভিযোগ, সোশ্যাল মিডিয়ার পাশাপাশি বেশ কিছু সংবাদমাধ্যমেও দাবি করা হচ্ছে, ওই পুজোর সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন বিজেপি নেতারা। ক্লাবের তরফে এ দিন দাবি, করা হয়, শুধু বিজেপি কেন, তাদের পুজো কোনও রাজনৈতিক দল দ্বারাই প্রভাবিত নয়। ক্লাবের কার্যকরী সহ- সভাপতি সুদীপ রায় বলেন, 'আমরা পরিষ্কার করে দিতে চাই যে আমাদের এখানে কোনওরকম বিজেপি-র ছোঁয়া নেই। আমাদের এখানে কোনও রাজনৈতিক দলের ছোঁয়া নেই। গত সত্তর বছৎ ধরে এলাকার সবধরনের মানুষকে নিয়ে আমাদের এই পুজোর আয়োজন করা হয়। ভবিষ্যতে এই ধরনের অপপ্রচার চালানো হলে আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে যথাযথ আইনি পদক্ষেপও নেওয়া হবে। 

উদ্যোক্তাদের দাবি, গত কয়েক বছর ধরে এই তাদের পুজো কলকাতার অন্যতম সেরা পুজোর তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। সেই কারণেই তাদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বড়িশা সর্বজনীনের কর্তারা।