এবার আলিপুর আদালতে ফের নতুন আবেদন  করলেন রাজীব কুমার। আদালতের কাছে তাঁর আর্জি, সিবিআই তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার আবেদন করলে একপক্ষের বক্তব্য না শুনে যেন কোনও রায় না দেওয়া হয়। 

এ দিন রাজীব যে আবেদন করেছেন, তাতে সরকারি কর্মী হিসেবে রক্ষাকবচ চেয়েছেন এডিজি সিআইডি। অর্থাৎ, তাঁকে গ্রেফতার করতে গেলে সরকারের অনুমতি নিতে হবে সিবিআই-কে। রাজীব কুমারের আবেদন এ দিন গ্রহণ করেছে আলিপুর আদালত। রাজীব কুমারের আইনজীবী গোপাল হালদার জানিয়েছেন, সিবিআই গ্রেফতারি পরোয়ানা চেয়ে আদালতে এলে তাঁদেরকেও বক্তব্য রাখার যথাযথ সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিচারক। 

আরও পড়ুন- আর সাক্ষী নয়, রাজীবকে এবার অভিযুক্ত হিসাবে দেখাচ্ছে সিবিআই

মঙ্গলবারই  বারাসত আদালতে আগাম জামিনের মামলা করেছিলেন রাজীব কুমারের আইনজীবী।  পাশাপাশি রাজীবকে জামিন অযোগ্য ধারায গ্রেফতারির আবেদন করে সিবিআই। দু' টি আবেদনই 'নন মেন্টেনেবল' বলে আলিপুর আদালতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। যার পর থেকেই রাজীবকে গ্রেফতার করতে তোড়জোড় শুরু করেছেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা। সারদা মামলায় রাজীবের বিরুদ্ধে তথ্য়প্রমাণ লোপাটের অভিযোগ এনেছে সিবিআই। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই আর সাক্ষী নয়, এবার সারদা মামলায় অভিযুক্ত হিসেবে দেখিয়ে রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার জন্য সিবিআই আদালতের দ্বারস্থ হতে পারে বলেই খবর। আর তা আন্দাজ করেই আগেভাগে আদালতের দ্বারস্থ হলেন রাজীবও।