পুজোয় এবার দশমীতেই রাশ টালন লালবাজার। এবার করোনা বিধির কথা মাথায় রেখেই একাধিক নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। যার মধ্যে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে দূরত্ব বজায় রাখা। কিন্তু প্রতিবার শোভাযাত্রায় হাজার হাজার মানুষের ভিড়, পাশাপাশি উদ্দাম নাচ, হুল্লোর পথের ধারে মানুষের ভিড় ঠাকুর দেখার জন্য, সব এক কথায় চলতি বছরে বন্ধ। সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে লাল বাজারের পক্ষ থেকে। 

শুধুমাত্র প্রতিমা কয়েকটি গাড়ি করে নিয়ে যাওয়া হবে নির্দিষ্ট ঘাটে। থাকতে পারবে পুজো কমিটির কয়েকজন। তবে কত জন তা এখনও নির্দিষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি। কোনওরকমের ঝুঁকি এড়াতে নারাজ প্রশাসন। তাই আগে থেকেই জানিয়ে দেওয়া হবে সবটাই। বিসর্জন ঘাটেও থাকবে কড়া নিরাপত্তা। গঙ্গার পারে থাকা ২৪ ও বাকি ৭০টি ঘাটে চলবে প্রতিমা বিসর্জনের কাজ। রাখা হবে কড়া নিরাপত্তা। 

 

এছাড়াও একাধিক নিয়মাবলি পাল ন করতে হবে। কোনও ব্যক্তিগত গাড়ি ঠাকুরের গাড়ির সঙ্গে যেতে পারবে না। বড় পুজোই হোক বা ছোট পুজো, কোনও ছাড় নেই। এক যোগে সকল পুজো কমিটিকেই মানতে হবে এই রীতি। পাড়ায় পাড়ায় প্রতিমা প্রদর্শণ বন্ধ করা হবে। থাকবে না গেল, লাইট, কোনও বাজনা। ডিজে লাগিয়ে বিসর্জনের দিন নাচও বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। ২৪ থেকে ২৯ অক্টোবর চলবে বিসর্জন।