দমকল কর্মীদের সঙ্গে আগুন নেভাতে হাত লাগাবে রোবট। শীঘ্রই দমকল বিভাগের কাছে চলে আসবে এই স্বয়ংক্রিয় মানব। যেখানে মানুষ ঢুকতে পারবে না সেখানে অনায়াসে কাজে লাগানো যাবে রোবটকে। 

সরস্বতী পুজোর দ্বিতীয় দিনেও আকাশ মেঘলা, শনিবার থেকে ফের নামবে তাপমাত্রা

একে একে ঢেলে সাজছে দমকল বিভাল। আগুন নেভাতে ইতিমধ্য়েই অত্যাধুনিক ফায়ার বল এসেছে দমকলের কাছে। টেন্ডার ডেকে ইতিমধ্য়েই রোবট ও ড্রোন কেনার কাজ সেরেছে দমকল বিভাগ। ফলে শীঘ্রই কলকাতা সহ রাজ্য়ের আগুন নেভাতে অত্যাধুনিক হতে চলেছে দমকলের পরিষেবা। কলকাতা বইমেলায় স্টলের উদ্বোধন করে তেমনই জানালেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। 

পাকিস্তানে এশিয়া কাপ হলে খেলবে না ভারত, সাফ জানিয়ে দিল বিসিসিআই

কলকাতার আগুনের অতীত ঘাঁটলে দেখা যায়, বহুক্ষেত্রেই উচু বাড়িতে আগুন ধরলে কম উচ্চতার কারণে সেখানে পৌঁছতে পারে না দমকলের সিড়ি। এবার সেই সমস্যা সামাধানের উদ্য়োগ নিয়েছেন  দমকল মন্ত্রী। সুজিত বসু জানান, আগে দমকলের কাছে ৬৮ মিটারের সিড়ি ছিল। আগামী দিনে দমকল বিভগের কাছে ১০২ মিটারের ল্যাডার আসছে। এতে আগুন নেভানোর ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হবে দমকল কর্মীদের। 

স্বস্তিতে কলকাতা, করোনা ভাইরাস মিলল না চিনা যুবতীর শরীরে

বড় কোথাও আগুন লাগলে এবার থেকে কলকাতা পুলিশের মতো মোবাইল কন্ট্রোল রুমের ব্য়বস্থা করবে দমকল। শীঘ্রই দুটো কন্ট্রোল রুমের পরিকাঠামো তৈরি হচ্ছে। এর জন্য় যা যা প্রয়োজন তার ব্য়বস্থা করছে অগ্নিনির্বাপণ বিভাগ। বুধবার আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় দমকল বিভাগের স্টল উদ্বোধন করেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার ৪ নম্বর গেটের পাশে দমকল বিভাগের স্টলের উদ্বোধন হয়। এদিন মেলায় আগুন নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর পাঠ দেয় দমকলের কর্মীরা। কীভাবে সাধারণ আগুন লাগলে তার মোকাবিলা করা সম্ভব, হাতেকলমে তা দেখানো হয় মেলায় উপস্থিত দর্শকদের।