করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এক চিনা যুবতীকে ভর্তি করা হয়েছিল বেলাঘাটা আইডি হাসপাতালে৷ কিন্তু তার শরীরে ওই ভাইরাস পাওয়া যায়নি৷ অবশেষে তিন দিন পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন হুয়াইন নামের বছর আটাশের ওই চিনা যুবতী৷ তিনি এখন পুরোপুরি সুস্থ৷

আরও পড়ুন, করোনা ভাইরাস থেকে কীভাবে নিজেকে বাঁচাবেন, জেনে নিন হু-র পরামর্শ

রবিবার রাতে, চিনা যুবতীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ৷ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ওই যুবতী জানিয়েছিলেন, চিন থেকে তিনি কলকাতায় বেড়াতে এসেছিলেন৷ প্রথমে ইস্টার্ন মেট্রোপলিটন বাইপাসের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে৷ এরপর রাত বাড়লে ওই চিনা যুবতীকে বেলাঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে ভাষাগত সমস্য়ার ফলে ওই চিনা যুবতীর চিকিৎসায় ভোগান্তিতে পড়েছিল বেলাঘাটা আইডি হাসপাতালের চিকিৎসকেরা।

আরও পড়ুন, ১৮২ জন তরুণীর অশ্লীল ভিডিও তুলে ফাঁস করার হুমকি, গ্রেফতার কলকাতার ৩ যুবক

বেলাঘাটা আইডি হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান তপন বিশ্বাস জানিয়েছেন,  হুয়াইন নামের ওই চিনা যুবতীর শরীরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি৷ স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে খবর, পুণের এনআইভি অর্থাৎ ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি  জানিয়েছে, পরীক্ষার জন্য ওই তরুণীর রক্ত ও লালার নমুনা পাঠানোর দরকার নেই৷ উল্লেখ্য়, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে, চিনে মৃতের সংখ্য়া বেড়ে দাঁড়িয়েছে একশোরও বেশি৷ করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজারের বেশি৷ ইতিমধ্য়েই গবেষকরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন যে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ক্রমশ চিনের নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাচ্ছে৷