নতুন বছরের আগে ক্রিসমাস উপহার হিসেবে বেহালা তথা দক্ষিণ কলকাতার মানুষের জন্য কি মাজেরহাট ব্রিজ উপহার দিতে চলেছে রাজ্য সরকার ? সরাসরি না বললেও এমনই ইঙ্গিত মিলেছে রাজ্যের পূর্ত দপ্তর এর পক্ষ থেকে। জানা গেছে আগামী ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দেওয়া হবে মাজেরহাট ব্রিজ। শোনা গিয়েছিল পুজোর আগে পরবর্তীতে কালীপুজোর আগে নবরূপে নির্মিত এই ব্রিজ উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন-আত্মরক্ষায় মহিলাদের কুংফু-ক্যারাটে প্রশিক্ষণ, পশ্চিম মেদিনীপুরে বিজেপির 'উমা' কর্মসূচি

যদিও,  ব্রিজের কাজ সম্পূর্ণ না হওয়ার জন্য নবনির্মিত এই ব্রিজের উদ্বোধন পিছিয়ে যায়। পূর্ত দফতরের পক্ষ থেকে জানা গেছে, খুব অল্প সময়ের মধ্যে এই ব্রিজ নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে। যদি এখনও বেশ কিছু কাজ বাকি রয়েছে। করোনাভাইরাস এর জন্য তিন মাস এবং রেলের কাছ থেকে বেশকিছু ছাড়পত্র মিলতে দেরি হওয়ার কারণে কিছুটা পিছিয়ে যায় ব্রিজ নির্মাণের কাজ। যদিও রাজ্য সরকার অত্যন্ত তৎপরতার সঙ্গে মাত্র এক বছরের মধ্যে এই ব্রিজের নির্মাণ প্রায় সম্পন্ন করেছে।  অন্যদিকে, পূর্ত দফতরের এক আধিকারিক এর বক্তব্য, মাত্র এক বছরের মধ্যে কেবল ব্রিজ নির্মাণ করা যথেষ্ট কৃতিত্বের। 

আরও পড়ুন-কানে মোবাইল দিয়ে বাস চালকের বেপরোয়া গতি, পশ্চিম মেদিনীপুরে বাস উল্টে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর ভেঙে পড়ে মাজেরহাট ব্রিজ। এই ব্রীজ ভেঙ্গে পড়ার পরে তীব্র সমস্যায় পড়েন বেহালার মানুষ। কলকাতার সঙ্গে যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বেহালার। পরে যোগাযোগ সহজ করতে নিউ আলিপুরে বসানো হয় বেইলি ব্রিজ।