সারা দেশের একাধিক জায়গায় স্কুল খুলেছে। এদিকে স্কুল খোলা হলেও আক্রান্তের খবরও আসছে। এমন ঘটনা দেশের বাইরেও ঘটেছে। তাই সবদিক বিচার করে বাংলায় আপাতত স্কুল না খোলারই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  বুধবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সেখানেই আপাতত স্কুল এখনও খুলছে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন শিক্ষামমন্ত্রী।

আরও পড়ুন, 'দলের ১০০% কর্মী ভালো নয়-তৃণমূলের সব আমার নজরে থাকে', বাঁকুড়ায় বিস্ফোরক মমতা

 


'কীভাবে পাঠ্যসূচিকে করা যায় মোকাবিলা'

 

শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, 'ছাত্রছাত্র দের কাছ থেকে শিক্ষা সংগঠন এর কাছ থেকে অনুরোধ পাচ্ছিলাম যে, এই করোনা পরিস্থিতি তে ক্লাস করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে সরকার অনলাইনের মাধ্যমে মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক এর ছাত্র ছাত্রীদের ক্লাস দিয়েছে সাহায্য করেছে। তা সত্বেও উচ্চ ও মধ্য শিক্ষা পর্ষদ ও আমাদের যে এক্সপার্ট কমিটি আছে। তাদের সুপারিশ আছে, তারা দেখছে কীভাবে পাঠ্যসূচিকে মোকাবিলা করা যায় সেটা দেখছে।'

আরও পড়ুন, ১ হাজার করোনা টিকা এসে পৌঁছল কলকাতায়, ডিসেম্বরেই শুরু পরীক্ষামূলক প্রয়োগ


'পাঠসূচীতে ৩০ শতাংশ কমানোর আবেদন' 


শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় আরও বলেন, 'এক্সপার্ট কমিটির দেওয়া সুপারিশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক নিয়ে সেটা নিয়ে আমরা মনে করি, এই কোভিট পরিস্থিতিতে ছাত্র ছাত্রীদের স্বাস্থ্য রক্ষা করে আমরা তাঁদের সুপারিশ গ্রহণ করলাম।  ২০২১ এ উচ্চ মাধমিক ও মাধ্যমিক এ পাঠসূচীতে ৩০ শতাংশ কমানোর আবেদন গ্রহণ করলাম। এবিষয়ে মিধ্যশিক্ষা পর্ষদ ও উচ্চ শিক্ষা সংসদ তাঁদের ওয়েবসাইট এ সমস্ত বিষয় জানিয়ে দেবে।'

 

আরও পড়ুন, শীতে কলকাতায় ঘোরার সেরা জায়গা, কমলালেবু খেতে খেতে বেড়িয়ে আসুন এই ঠিকানায়