আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা, তারপরেই উমা সপরিবারে হাজির হবেন মর্ত্যে। সারা বছর অধীর আগ্রহে মানুষ অপেক্ষা করে থাকেন দুর্গাপুজোর জন্য। তার মধ্যে কলকাতার পুজোকে ঘিরে উন্মাদনা বরাবরই তুঙ্গে থাকে। থিম পুজোর দৌড়ে কম বেশি এগিয়ে থাকবে সব ক্লাবই। এ বছর টালা পার্ক প্রত্যয়-এর থাকছে নতুন চমক।

থিম মেকার সুশান্ত পালের  ভাবনায় ৯৪তম বর্ষে তাদের নিবেদন ‘কল্পলোক’। এই ভাবনা থেকেই এবার সেজে উঠছে টালা পার্ক প্রত্যয়ের মণ্ডপ। সমাজ জীবনের বিভিন্ন কাল্পনিক ঘটনা, গল্পই এবার পুজোয় তুলে ধরছেন শিল্পী। কল্পনার জগতের বিভিন্ন দিক গোটা মণ্ডপের মধ্যে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে বাস্তবে। বাঁশ, লোহা , কাঠ ব্যবহার করে বিভিন্ন আবক্ষ মূর্তি, ইনস্টলেশন আর্ট দিয়েই বিশালাকার এই মণ্ডপ তৈরি করছেন বলে জানান শিল্পী সুশান্ত পাল। এত বড় স্পেসে কলকাতার পুজোয় কাল্পনিক ভাবনা-চিন্তা নিয়ে তিনি আগে কখনো কাজ করেননি বলেই জানান থিমমেকার সুশান্ত পাল । মণ্ডপের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই রাজকুমারের হাতের ছোঁয়ায় গড়ে উঠছে মাতৃপ্রতিমা।

আরও পড়ুন- জলই জীবন, এই বার্তার সঙ্গেই মা পূজিত হবে কাশী বোস লেন-এ

আলো-আঁধারির মায়াবী খেলাতেই জীবন্ত হয়ে উঠবে মণ্ডপ। আলোর রকমারি ব্যবহারেই কল্পলোক ’-এর অন্দরে পৌঁছে যাবেন দর্শনার্থীরা। উদ্যোক্তাদের আশা, দর্শনার্থীদের সামনে এবার তাঁরা অভিনব এক ভাবনা তুলে ধরছেন। কল্পলোকের আদলে আসলে বাস্তব ছবিই ফুটে উঠবে গোটা মণ্ডপ জুড়ে। এই মণ্ডপ দর্শনার্থীদের মনে গেঁথে যাবে। স্বীকৃতি স্বরূপ মিলবে নানা পুরষ্কার। ভরে উঠবে পুজো প্রাঙ্গন।