Asianet News BanglaAsianet News Bangla

রাত পেরোলেই বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা, জানাল হাওয়া অফিস

  •  বুধবার বঙ্গোপসাগরে তৈরি হবে একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্ত 
  •  প্রবল ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা পুরুলিয়া, বাঁকুড়া ও মেদিনীপুরে  
  • ঠান্ডা হাওয়ার আমেজ কয়েকদিন থাকবে শহর কলকাতায়
  • বুধবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ২২.৯ডিগ্রি সেলসিয়াস 
There may be rain in West Bengal says weather office
Author
Kolkata, First Published Mar 18, 2020, 7:10 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

শহর কলকাতার আকাশ আজ সারাদিনই  মেঘলা ছিল। তবে ঠান্ডা হাওয়া আমেজ শহরে ভোর থেকেই ছিল। যার দরুণ আকাশ মেঘলা হলেও খুব একটা গরম লাগেনি শহরবাসীর। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি অংশে মেঘলা আকাশ থাকলেও বৃষ্টির সম্ভাবনা খুব কম থাকলেও গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমের জেলাগুলিতেও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আজ বুধবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২.৯ডিগ্রি সেলসিয়াস। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ৩১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম।

আরও পড়ুন, করোনায় আক্রান্ত আমলার ছেলে, রাইটার্সে সিল করা হল তাঁর ঘর

শহর কলকাতার আকাশ আজ বুধবার আংশিক মেঘলা থাকবে। আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২.৯ডিগ্রি সেলসিয়াস। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ৩১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম।আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩২.১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।  শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯০ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৪১ শতাংশ। আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি নিচে থাকবে কলকাতার তাপমাত্রা। তারপরে বাড়লেও খুব সামান্যই তাপমাত্রা বাড়বে। বুধবার এই মুহূর্তে শহরের তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আরও পড়ুন, আসল বলে নকল মাস্ক বিক্রি, কীভাবে চলছে জাল কারবার

আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী,দক্ষিণবঙ্গের বেশিরভাগ জেলার আকাশ মেঘলা থাকবে, সঙ্গে হালকা বৃষ্টিও হতে পারে। হালকা বৃষ্টি ও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে, পুরুলিয়া বাঁকুড়া দুই মেদিনীপুর ঝাড়গ্রাম  এবং বর্ধমানে। বাকি জেলাগুলিতে মেঘলা আকাশ থাকবে।পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমের জেলাগুলিতেও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।  আগামী ২৪ ঘন্টা পর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হবে উচ্চচাপ বলয়। যার জেরে বিপরীত ঘূর্ণাবর্ত তৈরীর সম্ভাবনা। এছাড়াও ছত্রিশগড়ের তাপমাত্রা অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে। এই দুইয়ের জেরে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকবে। যার জন্য ওড়িশা ও ঝাড়খন্ডে বৃষ্টি ও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে। 

আরও পড়ুন, ইরানের পর এবার কুয়ালালামপুর, কলকাতার ছাত্রীর কাতর আবেদনের ভিডিও হল ভাইরাল

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios