Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Bar Association Election- প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পাশাপাশি নির্বাচনী ইস্তেহারেও বড় চমক তৃণমূলের

নির্বাচনে কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল শিবির জয়যুক্ত হলে আইনজীবীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের কাজ করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন রাজ্যের আইন মন্ত্রী মলয় ঘটক

TMC give big promises for Calcutta High Court Bar Association election
Author
Kolkata, First Published Nov 18, 2021, 6:22 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

পুর ভোটের(Municipal Polls) আবহেই কলকাতা হাইকোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশন (Calcutta High Court Bar Association) নির্বাচন নিয়েও বাড়ছে উত্তাপ। প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পাশাপাশি এদিন এই নির্বাচন উপলক্ষ্যে তৃণমূল-কংগ্রেসের(Trinamool-congress) পক্ষ থেকে নির্বাচনী ইস্তেহার(election Manifesto) প্রকাশ করা হল। আর তাতেই রয়েছে একগুচ্ছ প্রতিশ্রুতি। নির্বাচনে কলকাতা হাইকোর্টের(Calcutta high court) তৃণমূল শিবির জয়যুক্ত হলে আইনজীবীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের কাজ করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন রাজ্যের আইন মন্ত্রী মলয় ঘটক। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কলকাতা হাইকোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে বৃহস্পতিবার ১৫জন আইনজীবীর প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে তৃণমূল।

আসন্ন নির্বাচবনেই বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি পদে লড়তে চলেছেন বর্ষীয়ান আইনজীবী সর্দার আমজাদ আলি। যা নিয়ে ব্যাপক শোরগোল শুরু হয়েছে আইনজীবী মহলে। এদিকে বৃহস্পতিবার প্যানেল প্রকাশের সময় খোদ সর্দার আমজাদ আলি সহ উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক, রাজ্যসভায় দলের সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়, বিধায়ক অশোক দেব, বিশ্বজিৎ দেব, অশোক দণ্ডনীয়ার মতো ব্যক্তিত্বরা। তখনই সামনে আসে ইস্তেহারের কথাও। এবারে মূলত সাতটি এজেন্ডাকে সামনে রেখে বার অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে তৃণমূল-কংগ্রেস। ইস্তেহারের মূল্য লক্ষ্য স্থির করা হয়েছে ‘ভিশন ফর আ ব্রাইট ফিউচার অফ দ্য বার অ্যাসোসিয়েশন’।

আরো পড়ুন - পুরভোটের আগেই বিল পাশ, পাকাপাকি ভাবে আলাদা হয়ে গেল বালি-হাওড়া

নয়া ইস্তেহারে আইনজীবীদের জন্য একগুচ্চ উন্নয়নমূলক কর্মসূচির উপর জোর দেওয়া হয়েছে। সঙ্গে তাদের দেওয়া স্টাইপেন নিয়েও নতুন করে ভাবনাচিন্তা হচ্ছে বলে খবর। এদিকে কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবীদের জন্য হাউসিং কম্প্লেক্স তৈরি করার দাবি ছিল দীর্ঘদিনের। তৃণমূল ক্ষমতায় ফিরলে তা নিয়ে কাজ এগোবে বলে ইস্তেহারে বলা হয়েছে। পাশাপাশি বার অ্যাসোসিয়েশন লকার গুলো সারাই করে নতুন ভাবে তৈরি করা হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। একইসাথে বার অ্যাসোসিয়েশন গুলিকে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। এছাড়াও বার অ্যাসোসিয়েশনের অন্যান্য দাবিদাওয়াগুলো মেনে নেওয়া হবে বলে তৃণমূলের ইস্তেহারে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন - পুরভোটের আগে ফের হাওড়ায় খোলা মাঠ থেকে উদ্ধার বস্তাভর্তি আধার কার্ড, বাড়ছে চাপানউতর

একইসাথে কোর্টের জুনিয়র আইনজীবীদের আরও দক্ষ করে তোলার প্রতিশ্রুতিও দেওয়া হয়েছে তৃণমূলের ইস্তেহারে। তৈরি করা হবে সিনিয়র স্টাডি গ্রুপ। পাশাপাশি কুইজ, খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আইনজীবীদের মধ্যে একটা পারিবারিক সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করা হবে বলে শাসকদলের ইস্তেহারে দাবি করা হয়েছে। আগামী ২২ তারিখ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত রয়েছে বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন। নয়া ইস্তেহারে ভর করে ঘাসফুল শিবির নির্বাচনে কেমন ফল করে এখন সেটাই দেখার।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios