ভয়াবহ আগুন লাগল তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্রর বাড়িতে। মদন মিত্রের  ভবানীপুরের বাড়িতে আগুন লাগে। খবর পেয়ে তৎক্ষণাত ঘটনাস্থলে পৌঁছয়  দমকলের ৩টি ইঞ্জিন। বিধায়কের বাড়ির একতলার একটি ঘরে আগুন লাগে।

আগুন লেগেছে বুঝতে পেরেই বাড়ি থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসেন পরিবারের লোকজন। তবে কোনও আহত হওয়ার খবর মেলেনি। কীভাবে আগুন লাগল তা জানতে তদন্ত শুরু করে দমকল। পরিস্থিতি পরে আয়ত্বে আসে। শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগেছিল বলে অনুমান। বিধায়ক মদন মিত্র নিরাপদেই রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। 

দিন কয়েক আগেই নারদ মামলায় জেলবন্দী হতে হয়েছিল বিধায়ককে। ভোট চলাকালীন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এর পর নারদ মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পরেই ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন মদন মিত্র।  গ্রেফতার হওয়া বাকিদের মতোই এসএসকেম এ ভর্তি হন। যদিও তারপরেই নারদ মামলায় চার হেভিওয়েটেরই জামিন মেলে। অসুস্থ থাকার জন্য তারপরেও ভর্তি ছিলেন মদন এসএসকেএমে।  

প্রসঙ্গত, নারদ-মামলায় রাজ্যের  ৪ জন নেতা- মন্ত্রীকে বিনা নোটিশে গ্রেফতার করা হয়েছিল। গ্রেফতারির প্রতিবাদে নিজাম প্যালেসের বাইরে তৃণমূলের বিক্ষোভ শুরু হয়। সেদিন দুপুর ১২ টার পরে রাস্তায় তৃণমূল কর্মীরা বসে পড়েন। পোস্টার ব্যানার নিয়েও হাজির হন অনেকেই। দুপুর গড়াতেই সিবিআই সদর দফতরকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি শুরু হয়। নিজাম প্যালেসের পর রাজভবনের সামনেও চলে বিক্ষোভ। এখানেই শেষ নয়,নিউটাউনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কুশপুতুল দাহ করে তৃণমুল কর্মী সমর্থকরা।