গত সপ্তাহে টানা দুদিন ভারী বৃষ্টিতে ভেসে ছিল তিলোত্তমা। শহরের বিভিন্ন জায়গায় জল জমে দুর্ভোগের শিকার হয়েছিল শহরবাসী। এবার মঙ্গলবারও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। কলকাতা দিনভর ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এছাড়াও শহর লাগোয়া জেলাগুলিতেও বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে, এদিনও দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। ভারী বৃষ্টি হতে পারে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে।

টানা কয়েক দিনের বৃষ্টির পর সোমবারের পর থেকে ঝলমলে আকাশ দেখেছিল তিলোত্তমা। মঙ্গলবার সকালের দিকেও আকাশ মেঘলা থাকলেও সূর্যের আলো পড়ে শহরে। এই অবস্থায় নতুন করে কলকাতায় নতুন করে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এদিন দিনভর ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে শহর জুড়ে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টির পরিমান বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, নিম্নচাপ অবস্থান করেছে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় আরও শক্তি বৃদ্ধি করবে নিম্নচাপ। মূলত গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ওড়িশা উপকূলে নিম্নচাপ অবস্থান করেছে বলে জানা গিয়েছে।

এদিন দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে। দক্ষিণবঙ্গের বাকি সব জেলাতেও বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বইতে পারে ঝড়ো হাওয়া। পাশাপাশি পশ্চিমাঞ্চলের জেলা গুলিতে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রামে বেশি বৃষ্টি হতে পারে।

মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত উপকূলের জেলাগুলিতে প্রবল ঝড়ো হাওয়া সহ বৃষ্টি হতে পারে। সেকারনে মৎসজীবীদের সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। দিঘা, মন্দারমণি সমুদ্রে সমুদ্রে কড়া সতর্কতা জারি করেছে প্রশাসন। সমুদ্র উপকূলে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে বলে আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর।