উমার বাড়ি ফেরা মানে শুধুই কি আনন্দ উতসবেই সীমিত থাকা ? নাকি উমার বাড়ি ফেরা কে ঘিরে আনন্দ উৎসবের মধ্যে দিয়ে সামাজিক কোন না কোন দায়বদ্ধতা থেকে যায় পুজো কমিটি এবং ক্লাব গুলোর মধ্যে? অবশ্যই কোথাও গিয়ে এই দায়বদ্ধতা থাকে বলেই, বিভিন্ন ক্ষেত্রে উপস্থাপনা গুলো শুধু মাত্র জাঁকজমকে আটকে না থেকে বৃহৎ সামাজিক প্রেক্ষাপটকে জনসাধারণের সামনে তুলে আনে। দক্ষিণ কলকাতার অন্যতম সেরা পুজো গুলোর মধ্যে একটি ত্রিধারা সম্মিলনী ক্লাবের পুজো। প্রতিবারের মতই এবারও বর্তমান সামাজিক প্রেক্ষাপটের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়কে তুলে ধরছেন আয়োজকেরা। আয়োজকদের অন্যতম সদস্য শুভজিৎ চক্রবর্তীকে এবারের বিষয় নিয়ে জিজ্ঞেস করা হলে, উনি বলেন বিগত বেশ কিছু সময় যাবৎ সারা দেশ জুড়ে যে সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থান এবং মানুষে মানুষে যে হানাহানি, এমন গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক অস্থিরতাকে তুলে ধরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য এক উপস্থাপনা জনসাধারন দেখতে চলেছে।

দেখে নিন- নাম লেখাননি এখনও, দেরি না করে অংশ নিন এশিয়ানেট নিউজ শারদ সম্মান ২০১৯-এ


রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত শিল্পী শ্রী গৌরাঙ্গ কৈলার শিল্পকলায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা যে জনসাধারণের মনে দাগ কাটবে সে নিয়ে আয়োজকেরা বেশ আশাবাদী। শিল্পী বিষয়কে তুলে ধরতে ব্যবহার করছে মূলত লোহা। কারণ হিসেবে বলা যায়, সাম্প্রদায়িকতা মনের মধ্যে খুব সুক্ষ ভাবে জমা হতে থাকে, আর সেই জমা হতে হতে মন যেন সংকীর্ণ থেকে সংকীর্ণতর হয়ে ওঠে। আর এই সংকীর্ণতাকে লোহার বিভিন্ন গঠনের মধ্যে দিয়ে প্রকাশ করা হচ্ছে না রূপক হিসেবে কে বলতে পারে? 
৭৩ তম বছরে পদার্পণ করেছে ত্রিধারা সম্মিলনী। আগের বারের বিষয় যেখানে ছিল পাট নিয়ে, এবারে বিষয় সেখানে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি নিয়ে। আলো যে এখানে বেশ বড় ভূমিকা পালন করবে তা বলাই বাহুল্য। আয়োজকদের অন্যতম সদস্য  শুভজিৎ চক্রবর্তী আমাদের জানান, এবারে জন্সাধারন প্যান্ডেলের ভেতরে যত এগিয়ে যাবে , পেছনে ফেলে আসা দৃশ্য ততই আবছা হতে যাবে তাদের দৃষ্টিতে। তিনি ট্রাফিক নিয়ন্ত্রন নিয়ে কলকাতা পুলিশের ভূয়সী প্রশংসা করেন। ক্লাবের পক্ষ থেকেও ভ্লিন্টিয়ার থাকবে জনশারন যাতে সুষ্ঠ ভাবে দর্শন করতে পারতে সে বিষয়ে নজর রাখার জন্য।  

আরও পড়ুন- প্রায় দুশো বছরের ঐতিহ্য বহন করে আজও লাহা বাড়ির পুজো সকলের নজর কাড়ে
কিভাবে যাবেন-
উত্তর কলকাতা এবং গড়িয়ার দিক থেকে যারা আসবেন , তারা মেট্রো করে কালী ঘাট মেট্রো স্টেশানে নেমে গড়িয়া হাটের অটো ধরে পৌঁছে যেতে পারবেন।
ট্রেনে করে যারা আসবেন দক্ষিণ ২৪ পরগণা থেকে তারা নিউ গড়িয়া স্টেশানে নেমে মেট্রো করে আগের মতই কালী ঘাট মেট্রো স্টেশানে নেমে গড়িয়া হাটের অটো ধরে পৌঁছে যেতে পারবেন।
ত্রিধারা সম্মিলনীর পুজো দেখার সাথে সাথে আপনারা দেখতে পারবেন –
১। দেশপ্রিয় পার্ক সার্বজনীন
২। একডালিয়া এভারগ্রীন 
৩। বালিগঞ্জ কালচারাল অ্যাসোসিয়েশান
৪। সিংহী পার্ক সার্বজনীন
৫। হিন্দুস্তান পার্ক সার্বজনীন