প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রায় প্রতিবছর জঙ্গি হামলার সতর্কতা থাকেই। কিন্তু গত ৬ মাসে দেশজুড়ে এমনকিছু ঘটনা ঘটেছে যারজেরে এবছর নিরাপত্তায় বাড়তি নজর দিয়েছিল রাজ্য সরকার। আর তার মাঝে প্রজাতন্ত্র দিবসের ঠিক আগের দিন রাতেই রাজারহাট থেকে উদ্ধার হল ৫টি আগ্নেয়াস্ত্র ও চার রাউন্ড গুলি। এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে ২ জনকে। এই মুহূর্তে ধৃতদের দফায় দফায় জেরা করছে তদন্তকারী অফিসার।

আরও পড়ুন, বড়বাজার থেকে উদ্ধার সাড়ে ৬ কোটির চোরাই সোনা, গ্রেফতার ২

পুলিসি সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রজাতন্ত্র দিবসে বড়সড় নাশকতার ছক কষেছিল অভিযুক্তরা। ধৃতদের নাম আমির আহমেদ খান ওরফে রাজা এবং মহম্মদ আক্রম শেখ।  পুলিশ  গোপন সূত্রে আগেই  খবর পেয়েছিল যে,প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে রাজারহাটে বেশ কিছু অস্ত্র ঢোকার সম্ভাবনা রয়েছে। সেই মতো পুলিশ, তাদের গোপন সূত্র কাজে লাগিয়ে দেয়। শনিবার গভীর রাতে সূত্র মারফত খবর আসে, রাজারহাট থানা এলাকার পোদ্রা ব্রিজের কাছে সন্দেহভাজন দুজন ব্য়ক্তি দাঁড়িয়ে আছে। খবর পেতেই পুলিস গিয়ে দুজনকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। তাদের উপর তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ, পাঁচটি নতুন আগ্নেয়াস্ত্র ও চার রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে। 

আরও পড়ুন, করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কতা, প্রজাতন্ত্র দিবসে কলকাতায় আসছে কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞ দল


পুলিস সূত্রে খবর, এর আগে রায়গাছি এলাকায় গুলি চালানোর অভিযোগ আছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। পুলিস জানিয়েছে, রাজারহাট এলাকায় কোনো বড় অপরাধের জন্য তারা এই অস্ত্র গুলো নিয়ে এসেছিল। তবে কি কারণে এগুলো এনেছিল ও কোথা থেকে এনেছিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।  ধৃতদের বারাসাত কোর্টে তোলা হবে। নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে রাজারহাট পুলিস। হেফাজতে নেওয়ার পরই   পুলিশের তরফে বাকি তদন্ত চালানো হবে ।