করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে রবিবার কলকাতায় আসছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দল। নেপালে করোনা আক্রান্তের খবর আসতেই রীতিমত সতর্ক রাজ্য প্রশাসনও। যার দরুণ  স্বাস্থ্য দফতরের তরফে নেপাল সীমান্তে বিশেষ চেকপোস্ট খোলা হল । বিমানবন্দরের পাশাপাশি পার্শ্ববর্তী হাসপাতালের পরিকাঠামোও খতিয়ে দেখবে বিশেষজ্ঞ দল।

আরও পড়ুন, বড়বাজার থেকে উদ্ধার সাড়ে ৬ কোটির চোরাই সোনা, গ্রেফতার ২

করোনা ভাইরাস নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ সহ সাতটি রাজ্যে বিশেষ নজরদারি শরু হয়েছে। রবিবার কলকাতায় আসছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বিশেষজ্ঞ দল। বিমানবন্দরেই চিন, হংকং, ভিয়েতনামের মতো দেশ থেকে আসা যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা হচ্ছে। সেই কাজই খতিয়ে দেখবে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বিশেষজ্ঞ দল। পার্শ্ববর্তী হাসপাতালগুলির পরিকাঠামোও খতিয়ে দেখবেন তাঁরা।করোনার উপসর্গ ধরা পড়লে কী করতে হবে, তারও একটা নির্দেশিকা দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। রোগীকে পাশ্ববর্তী সরকারি হাসপাতালে ভরতি করার ব্যবস্থা থাকবে। তবে অবশ্য়ই সেই হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ড থাকতে হবে। 

 

 

আরও পড়ুন, প্রজাতন্ত্র দিবসে জাঁকিয়ে শীত কলকাতায়, আগামী সপ্তাহে বৃষ্টির সম্ভাবনা

কলকাতা বিমানবন্দরে এ ধরণের রোগী শনাক্ত হলেই, তাঁকে  নিয়ে আসা হবে বেলেঘাটা আইডি-তে। বেলেঘাটা আইডিতে, ১৬ বেডের আইসোলেশন ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। নেপালে করোনায় আক্রান্তের হদিশ মেলায় বাড়তি সতর্কতা নিয়েছে রাজ্য। নেপাল সীমান্তে, মিরিকের সিমানে, পানিট্যাঙ্কি, পশুপতিনগরে স্বাস্থ্য দফতরের চেকপোস্ট। এখানেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে প্রবেশের অনুমতি মিলছে। উল্লেখ্য়, উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে খোলা হয়েছে আইসোলেশন ওয়ার্ড।