সম্প্রতি নিয়ে বিবাদের জেড়ে বড় জা-এর  গায়ে আগুন দিয়ে শ্রীঘরে গেলেন ছোট জা। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে বরাহনগর পুরসভার লেকভিউ পার্ক অঞ্চলে। ইতিমধ্য়েই মৃতার ছোট জা সুস্মিতা দাসকে গ্রেফতার করেছে বরানগর থানার পুলিশ। 

আরও পড়ুন, কলকাতা মেট্রো ছত্রিশ ছুঁইছুঁই, ছবিতে ফিরে দেখা যাক সেই ইতিহাস

পুলিশ সূত্রে খবর, ওই দিন রাতেই শ্যামলী দাসের   গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগে  সুস্মিতা দাস নামে এক মহিলা কে গ্রেফতার করে বরাহনগর থানার পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে খবর, সম্পর্কে ওই দুই মহিলা একে অপরের জাঁ। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই মালতি দাসের দুই সন্তান ও তাদের পরিবারের মধ্যে বিবাদ চলছিল। ওই দিন রাতে শ্যামলী দেবী বাড়ির বাইরে বেরোলে সুস্মিতা শ্যামলীর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে এলাকার বাসিন্দারা  কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানেই তিনি মারা যান। 

আরও পড়ুন, কসবার বহুতলে আগুন, আতঙ্কে খালি পায়ে বেরিয়ে পড়েন এলাকাবাসী

সূত্রের খবর, এই ঘটনায় অভিযুক্ত সুস্মিতা দাসকে গ্রেফতার করলেও  ছোট ভাই চন্দন দাসের খোঁজ চালাচ্ছে বরাহনগর থানার পুলিশ।এলাকার বাসিন্দারা জানান, এক গৃহবধু কে গায়ে আগুন লাগা অবস্থায় ছুটতে দেখেন। তখন তারা তাকে উদ্ধার করে হাস্পাতালে নিয়ে যান।  ইতিমধ্য়েই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে  পুলিশ। কীভাবে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।