কখনও ট্রেন! কখনও ট্রেন লাইন! আবার কখনও দীর্ঘ ব্রিজ থেকে গঙ্গায় ঝাঁপ। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার জন্য অ্যাডভেঞ্চার ভিডিওর নেশায় একের পর এক ঘটে চলেছে মর্মান্তিক ঘটনা। এই ধরনের ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যাটাও কম নয়। সচেতনতাবোধকে তোয়াক্কা না করেই থামছে না এই ধরনের ঘটনা। রবিবার বিকেলে এই মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী থাকল বিদ্যাসাগর সেতু।

আরও পড়ুন-সংখ্যালঘু এলাকায় 'পরিবর্তন যাত্রায়' অশান্তির আশঙ্কা, মুর্শিদাবাদে বিজেপির পথ আটকাল পুলিশ

জানাগেছে, অ্যাডভেঞ্চারপ ভিডিও বানানোর উদ্দেশ্যে দ্বিতীয় হুগলি ব্রিজ থেকে গঙ্গায় ঝাঁপ দেয় দুই যুবক। একজন জীবীত অবস্থায় উদ্ধার হলেও অপরজন তলিয়ে যায়। গঙ্গায় তলিয়ে যাওয়া নিখোঁজ যুবকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার জন্য অ্যাডভেঞ্চার ভিডিও তৈরির জন্য রবিবার বিকেলে দ্বিতীয় হুগলি সেতুতে জড়ো হয়েছিল ৫ জন যুবক। সেই মতো এদিন দুই জন যুবক একসঙ্গে গঙ্গায় ঝাঁপ দেয়। কিন্তু একজন তলিয়ে যাওয়ার পরই বাকিরা আর গঙ্গায় ঝাঁপ দেওয়ার সাহস পায়নি।

আরও পড়ুন-'আমি চাই ভাগচাষিরাও টাকা পাক,কিষাণ নিধিতে যুক্ত হোক', মোদীর তোপের পর পাল্টা দাবি মমতার

ভিডিও বানানোর উদ্দেশ্যে জড়ো হওয়া যুবকরা প্রশিক্ষিত সাঁতারু ছিলেন বলেও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। আত্মহত্যা বা এই ধরনের ঘটনা রুখতে ইতিমধ্যেই কড়া নজরদারির ব্যবস্থা রয়েছে দ্বিতীয় হুগলি সেতুতে। এই অবস্থায় পুলিশের কড়া নজরদারি এবং সিসিটিভি এড়িয়ে এই ৫ জন যুবক কীভাবে দ্বিতীয় হুগলি সেতু থেকে গঙ্গায় ঝাপ দিল, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।