গত মাসের শুরুতেই দেশে এসে পৌঁছে ছিল রাশিয়ার করোনা টিকা স্পুটনিক ভি। দেশের মধ্যে প্রথমবার হায়দরাবাদে এই টিকা দেওয়া হয়। আর সোমবার থেকে কলকাতায় শুরু হচ্ছে স্পুটনিক ভি-র টিকাকরণ। কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালে এই টিকা দেওয়া হবে। টিকার প্রতিটি ডোজের দাম ১ হাজার ২৫০টাকা। 

আরও পড়ুন- টিকাকরণের সংখ্যায় বিশ্বে এখন এক নম্বরে ভারত, পিছনে ফেলল আমেরিকাকে

দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর টিকার আকাল দেখা দিয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। কোথাও রাতভর লম্বা লাইনে দাঁড়িয়েও টিকা পাননি অনেকেই। কোথাও আবার টিকা শেষ হয়ে যাওয়ার পর বোর্ড ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। এই একই ছবি ধরা পড়েছে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গাতেও। এদিকে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার একমাত্র উপায় টিকাকরণ বলে একাধিকবার দাবি করেছেন চিকিৎসকরা। আর তার মধ্যেই আশার আলো দেখাল স্পুটনিক ভি। এখন থেকে কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিনের পাশাপাশি স্পুটনিক ভি টিকাও নিতে পারবেন কলকাতাবাসী। 

১ মে রাশিয়া থেকে হায়দরাবাদে পৌঁছে ছিল স্পুটনিক-V-র দেড় লক্ষ ডোজ। দেশে টিকার ঘাটতি মেটাতে গত মাসেই স্পুটনিক ভি ব্যবহারের উপর ছাড়পত্র দিয়েছিল ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারাল অফ ইন্ডিয়া বা ডিসিজিআই। ১৪ মে ডঃ রেড্ডি'স ল্যাবরেটরিজ ভারতের বাজারে স্পুটনিক-ভি টকার বাণিজ্যিকীকরণ প্রক্রিয়া শুরু করে। আর ওই দিনই হায়দরাবাদে এই টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়। প্রথম পর্বের ২১ দিন পর দ্বিতীয় পর্বের টিকাকরণ হবে। এই টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনি মাত্র ০.১ শতাংশ বলে দাবি করেছে রাশিয়া। 

আর এবার কলকাতাতেও এই টিকা পাবেন সাধারণ মানুষ। সোমবার থেকে অ্যাপোলো হাসপাতালে শুরু হবে টিকাকরণ। এই টিকার দুটি ডোজ নিতে একজনের খরচ হবে আড়াই হাজার টাকা। এদিকে এর মধ্যেই আবার করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা। তার আগে যত দ্রুত সম্ভব দেশবাসীর টিকাকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়া প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তাঁরা। তাই এই পরিস্থিতিতে বাজারে স্পুটনিক ভি এসে যাওয়ায় টিকার ঘাটতি অনেকটাই মিটবে বলে মনে করা হচ্ছে।