বৃষ্টি বুড়ি ছুঁয়ে চলে গিয়েছে। আলিপুরদুয়ার কোচবিহার ভাসছে, কিন্তু মাথায় হাত কলকাতার। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে বৃষ্টির দুশ্চিন্তা দূর হবে। যদিও একই সঙ্গে রয়েছে ভয়ের পূর্বাভাস।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, আজ পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, মুর্শিদাবাদ, বীরভূমে ঝড়বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে। স্থানীয় মেঘ ডেকে আনবে এই বৃষ্টি। আর কলকাতায় বৃষ্টি হবে ৩০ জুন, ১ জুলাই ও ২ জুলাই তারিখ। হাওয়া অফিস সূত্রের খবর, কলকাতা-সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির কারণ উত্তর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপ।  ওই দিনগুলিতে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করেছে আবহাওয়া দফতর। 

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে আগেই জানানো হয়েছিল, ২৫ জুন থেকে ২৮ জুন পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টি হবে। জানানো হয়েছিল ন্যূনতম ৭ সেমি. ও সর্বাধিক ২০ সেমি. বৃষ্টিপাত হবে। এদিনও আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে ভারী ও অতি ভারী বৃষ্টি হওয়ার চলছে। বৃষ্টি চলছে জলপাইগুড়ি দার্জিলিং-এ.

এদিন কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন বাতাসের  আর্দ্রতার পরিমাণ প্রায় ৮০ শতাংশের কাছাকাছি। ফলে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও থাকছে সারাদিন ধরে। জেলাগুলি স্থানীয় মেঘের সঞ্চারের ফলে সামান্য বৃষ্টি পেলেও শহর কলকাতায় তার আঁচ পড়বে না। আকাশ অংশত মেঘলা থাকবে।