আগামী ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে বর্ষা ঢুকতে চলেছে কলকাতা-সহ দক্ষিণ বঙ্গে। হ্যাঁ এমনই খুশির খবর শোনাল হাওয়া অফিস। শুধু তাই না তীব্র গরমের কষ্ট লাঘব করতে আর কিছুক্ষণেই ধেয়ে আসছে বৃষ্টি। 

কিন্তু কোন পথে আসছে বর্ষা? হাওয়া অফিস জানাচ্ছে,  উত্তর-পূর্ব দিক থেকে উত্তর  বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত একটা নিম্নচাপ অক্ষরেখা গেছে। এছাড়া পূর্ব, মধ্য ও উত্তর পূর্ব বঙ্গোপসাগরের উপরে একটা ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। এই জোড়া সক্রিয়তার ফলেই আগামী দুই তিন দিনে একটা নিম্নচাপ তৈরি হবে বঙ্গোপসাগরের উপর। 

আবহবিদদের দাবি, এই নিম্নচাপটির কারণেই বর্ষা ঢোকার একটা অনুকূল পরিবেশ তৈরি হয়েছে রাজ্যে। 

প্রসঙ্গত নিম্নচাপ অক্ষরেখা জন্য আজ ও কাল  কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলাতে বিকেলের দিকে ঝড়-বৃষ্টি হবে। কাল ও পরশু বৃষ্টির পরিমাণ দক্ষিণবঙ্গে বাড়বে  এবং  তাপমাত্রা ও কমবে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হচ্ছে, উত্তরবঙ্গের পর্বত সংলগ্ন পাঁচ জেলাতে ভারী বৃষ্টি চলবে। এবং ৪৮ ঘন্টা পরে বৃষ্টির পরিমাণ আরও  বাড়বে। এর ফলে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে হিমালয় সংলগ্ন জেলাগুলিতে। হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দুই দিনাজপুর ও মালদা জেলায়। 

এবছর বর্ষা আসতে দেরির পিছনে প্রশান্ত মহাসাগরের উষ্ণ জলতলকে দায়ী করছেন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা। তাছাড়া আরব সাগরে ঘন ঘন তৈরি হওয়া ঘূর্ণাবর্তের কারণেও পিছপা হয়েছে বর্ষা। এদিন কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দিন কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সারাদিনই ছিল আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। আবহাওয়া দফতরের মতে, আর কিছুক্ষণেই এই দ্বালা জুড়োবে কলকাতার।