রবিবার সকাল থেকেই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে ভিজল শহর কলকাতাসহ সারা দক্ষিণবঙ্গ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই মেঘলা আকাশ। হালকা বজ্রবিদ্যতসহ বৃষ্টিপাতও হয়ে বেশ বিছু অঞ্চলে। স্থানীয় মেঘ ও মৌসুমীবায়ুর প্রভাবে ক্রমেই বাড়তে থাকে বৃষ্টি। কিন্তু সপ্তাহের শেষে দেখা মিলবে না ভারী বর্ষণের এমনটাই জানানো হয়েছিল আবহাওয়া দফতর থেকে। কিন্তু রবিবার যেতে না যেতেই আবারও সুখবর শোনালো আবহাওয়া দফতর।

আরো পড়ুনঃ 'জয় শ্রীরাম' নিয়ে প্য়ারোডি, 'দিদিকে বলো,হরি বলো' বাবুলের

সপ্তাহের শুরুতেই আবারও তৈরি হচ্ছে নিম্নচাপ পরিস্থিতি। বঙ্গোপোসাগরের ওপরে তৈরি এই নিম্নচাপের সঙ্গে মৌসুমী বায়ু যুক্ত হয়েই আবার তৈরি করতে চলেছে ভারী বর্ষণের পরিস্থিতি। যার জেরেই ভাসবে শহর কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গ। বর্ষার দেখা নেই রাজ্যে, আক্ষেপ থাকলেও ভাদ্রমাস পড়তে না পড়তেই বেশ কয়েকদিন ধরে ভিজছে শহর। ফলে শহরবাসীরও স্বস্তি। 

আরও পড়ুনঃ মহিলার দেহ লোপাট করতে গিয়ে ধরা পড়ে গেল মেয়ে, জামাই, চাঞ্চল্য বেহালায়

তবে টানা ভারী বর্ষণের জেরে ব্যহত হওয়া যানচলাচলের কথা মাথায় রেখেই আবারও অনেকেরই কপালে চিন্তার ভাঁজ। সামনেই পুজো। হাতে গোনা কয়েকটা দিন। কেমন থাকবে আবহাওয়া! তার উত্তর এখনই না মিললেও বৃষ্টির খানিক আঁচ মিলছে। কিন্তু টানা কয়েকঘন্টার বৃষ্টিতেই শহরে জল থৈথৈ চিত্র উঠে আসার পরই যেন সমস্যা নয়া মোড় নেয়। তারই মাঝে আবারও ভারী বর্ষণের সম্ভাবনার কথা জানিয়ে দিল আবহাওয়া দফতর। 

আরও পড়ুনঃ বাংলায় নির্বাচনের দায়িত্ব সামলেছিলেন, অরুণ জেটলিকে শ্রদ্ধা জানাল বঙ্গ বিজেপি

উত্তর বঙ্গোপোসাগরে সৃষ্টি হওয়া নিম্নচাপের জন্যই আগামী ২৪ঘন্টার মধ্যেই বৃষ্টির দেখা মিলবে শহরে। বুধবার থেকে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিপারে সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলায়। সঙ্গে বইবে ঝড়ো হাওয়া। বাতাসের গতিবেগ থাকবে প্রায় ৪০ কিমি।