শহর কলকাতা ও পাশ্ববর্তী অঞ্চলে সকাল থেকেই আজ মেঘলা আকাশ। কম-বেশি সব জায়গাতেই চলছে বৃষ্টি। সরস্বতী পুজোর দিন  বৃষ্টিতে নাজেহাল শহরবাসী।  আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, তবে শুক্রবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের আকাশ পরিস্কার হয়ে যাবে। সকালের দিকে থাকবে সামান্য কুয়াশা, রাতের দিকে নামবে তাপমাত্রা। সপ্তাহান্তে ফের মিলবে শীতের আমেজ। 

আরও পড়ুন, করোনা ভাইরাস থেকে কীভাবে নিজেকে বাঁচাবেন, জেনে নিন হু-র পরামর্শ
 
আজ বুধবার, শহর কলকাতার আকাশ আজ পরিষ্কার থাকবে । আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ১৮.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি বেশী। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা  ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশী। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, রবিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে  ২৭.৩  ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।  শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক  ৯৭ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম  ৪২ শতাংশ।  এই মুহূর্তে শহরের তাপমাত্রা ২৩  ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আরও পড়ুন, ১৮২ জন তরুণীর অশ্লীল ভিডিও তুলে ফাঁস করার হুমকি, গ্রেফতার কলকাতার ৩ যুবক

গত সপ্তাহে, শুক্রবার যেখানে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫.১ ডিগ্রি। সেখানে শনিবার তা নেমে দাঁড়ায় ১২ ডিগ্রিতে।  কিন্তু রবিবার প্রজাতন্ত্র দিবসের পর থেকেই তাপমাত্রা আবার বাড়তে শুরু করে। অবশ্য় কাশ্মীর থেকে হিমাচল প্রদেশে কনকনে ঠান্ডা হাওয়া বইছে। বরফ পড়ছে। আগামীকাল ৩০ জানুয়ারি জম্মু-কাশ্মীরে একটি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।আবার ওই সময় বঙ্গোপসাগরে ও একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্তও তৈরি হতে চলেছে। এর ফলে দক্ষিণবঙ্গে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। ঠান্ডা হাওয়া এবং সমুদ্রের জলীয় বাষ্পের সংস্পর্শে তৈরি হবে মেঘ। ফলে ওই সময় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আগামী দু-তিন দিন উত্তর ,পশ্চিম ও মধ্যভারতের রাজ্যগুলিতে ঘন কুয়াশার দাপট থাকবে।