শহর কলকাতায়, শুক্রবার সকাল থেকেই  আকাশ মেঘলা করে আছে। কুয়াশা ও হালকা মেঘের কারণে শহর কলকাতার তাপমাত্রা সামান্য বেড়েছে। আগামীকাল শনিবার আকাশ মেঘলা  থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এর ফলে দিনের তাপমাত্রা কম থাকবে, রাতের দিকে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও। 

আরও পড়ুন, শনিবার থেকেই বাড়তি ট্রেন, ঘোষণা মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের

আজ শুক্রবার , শহর কলকাতার আকাশ  রাতের দিকেও মেঘলা থাকবে। আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬.৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে ২৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।  শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯১ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম  ৩৯ শতাংশ।  এই মুহূর্তে শহরের তাপমাত্রা ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, রাতের দিকে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও। বিশেষ করে উড়িষ্যা সংলগ্ন জেলা গুলি পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর ,ঝাড়গ্রাম, হাওড়াতে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। তবে আগামী ৯ তারিখ থেকে এই পরিস্থিতি  কেটে যাবে। ৯ তারিখের পর থেকে রাতের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি কমবে। ৯  এবং ১০ তারিখে সামান্য শীতের অনুভূতি থাকবে। ১১ তারিখে নতুন করে আবার একটা পশ্চিমী ঝঞ্জা আসার সম্ভাবনা আছে।

আরও পড়ুন, বিজেপি-র মিছিল ঘিরে টালিগঞ্জে ধুন্ধুমার, আটক মুকুল রায় ও কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

 
 আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী,  আগেই জানানো হয়েছিল যে,  ওড়িশা লাগোয়া উপকূল ও পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে বৃষ্টি হতে পারে। এর প্রধান কারণ পশ্চিমি ঝঞ্ঝার প্রভাবে বঙ্গোপসাগর থেকে উষ্ণ, জলীয় বাষ্প ভরা দক্ষিণী বাতাস স্থলভাগে ঢুকছে। আর উত্তর থেকে ক্রমাগত আসছে উত্তুরে বাতাস। এই দুইয়ের সংঘর্ষেই বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাতের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া দফতরের তরফে বলা হয়েছে যে, ওড়িশায় ঝড়বৃষ্টির পরিমাণ বাড়ার ফলে তার প্রভাব পড়বে পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়ায়।