শনিবার আকাশ  আংশিক মেঘলা শহর-শহরতলিতে। আবহাওয়া দফতরে খবর অনুযায়ী, এদিনও  সকাল ৬টা থেকে ১-২ ঘন্টার মধ্যে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে   রাজ্যে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে রাজ্যজুড়ে ঝড়-বৃষ্টির প্রভাবে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের অনেকটাই নিচে নেমে গিয়েও ফের তাপমাত্রা সামান্য বাড়ল এদিন।  উল্লেখ্য, কেরলে নির্ধারিত সময় আসবে বর্ষা জানিয়েছে আইএমডি।  

 

 

আরও দেখুন, Live Covid 19- কোভিডে একদিনে শতাধিক মৃত্যু বাংলায়, মমতার চিঠির উত্তরে বিপুল সাহায্যের আশ্বাস দিল কেন্দ্র 

 

আবহাওয়া দফতরে খবর অনুযায়ী,  এদিনও  রাজ্যে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। শনিবার সকাল ৬টা থেকে ১-২ ঘন্টার মধ্যে ৩০ থেকে ৪০ কিমি বেগ নিয়ে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি হবে জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, মালদা, দুই দিনাজপুরে। তবে  দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির প্রভাব কমবে  এবং  বাড়বে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। শুক্রবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে উত্তরবঙ্গে। শুক্র ও শনিবার দার্জিলিং কালিম্পং আলিপুরদুয়ার কোচবিহার জলপাইগুড়ি এই পাঁচ জেলাতেই ভারী বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বইবে।  সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বভাস। পাশাপাশি  রাজ্যজুড়ে এই ঝড়-বৃষ্টির স্পেল চলবে। দক্ষিণবঙ্গের কিছু এলাকায় কালবৈশাখীর সম্ভাবনার কথাও জানাচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর। বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি ও ঝড়ের সময় ঘর থেকে না বেরোনোর পরামর্শ আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের। ঝড়-বৃষ্টির প্রভাবে তাপমাত্রা কমতে পারে রাজ্যে। 

 

 

আরও পড়ুন, টিভি দেখছিলেন, আচমকা পড়ে গেলেন, কোভিডে মৃত্যু হল একাকী বৃদ্ধার 


বিধানসভা নির্বাচনের দিনগুলিতে যেভাবে কাঠফাটা রোদ ও আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিতে ভুগতে হয়েছে মানুষকে তার থেকে রেহাই মিলতে পারে। আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে সোমবার থেকেই তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে নামতে শুরু করেছে। বিশেষ করে দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে থাকায় স্বস্তির আবহাওয়া মিলবে রাজ্যে। অপরদিকে কেরলে বর্ষা আসার স্বাভাবিক সময় ১ জুন। জুন থেকে সেপ্টেম্বর- এই চার মাস গোটা দেশেই ৭০ শতাংশ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের সচিব এম রাজীবন সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন আবহাওয়া দফতরের কথা তুলে ধরে জানিয়েছেন কেরলে নির্ধারিত সময় আসবে বর্ষা। ইন্ডিয়ার মেটেরোলজিক্যাল সেন্টার আগামী চার সপ্তাহের আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে। 

আরও পড়ুন, শুধু লোকাল ট্রেন নয়, কোভিডে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ শিয়ালদহ-লালগোলা 'ধন ধান্যে এক্সপ্রেস' 

 

 

রাজ্যজুড়ে ঝড়-বৃষ্টির প্রভাবে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের অনেকটাই নিচে নেমে গিয়েও ফের তাপমাত্রা সামান্য বাড়ল শনিবারে। আবহাওয়া দফতরে খবর অনুযায়ী, শনিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.০ ডিগ্রি সেলসিয়ার্স।    স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ২৬.৩ ডিগ্রী।  অপরদিকে এদিন শহরের বাতাসে জলীয়বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৮৭ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৩৭ শতাংশ বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।  শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.০ ডিগ্রি সেলসিয়ার্স।    স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ২৪.৫ ডিগ্রী।  স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। অপরদিকে এদিন শহরের বাতাসে জলীয়বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৮৬ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৫৬ শতাংশ বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.০ ডিগ্রি সেলসিয়ার্স।    স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ২২.৫ ডিগ্রী।  স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি কম। অপরদিকে এদিন শহরের বাতাসে জলীয়বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৮৫ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৫২ শতাংশ বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।