রাজ্য়ে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়িয়ে গেল। শুক্রবার সেই কথা বলছে রাজ্য় স্বাস্থ্য় দফতরের করোনা বুলেটিন।  এদিন রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৫ জন। 

বৃহস্পতিবারের তুলনায় এই সংখ্য়াটা অনেকটা কম হলেও হিসেব বলছে, রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সংক্রমিত ১৩ হাজার ৯০ জন। এদিন করোনা অ্যাকটিভ কেস ৪২টি। বর্তমানে রাজ্যে মোট করোনা অ্যাকটিভ ৫,২৫৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত ১৩১ জন। একদিনে ৮৬ জন সুস্থ হয়ে উঠলেও করোনার বলি হয়েছেন ৬জন। এই নিয়ে মহানগরে এখনও পর্যন্ত মারণ ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ৩২২ জন।

পরিসংখ্য়ান বলছে, রাজ্য়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১১ জন। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৫২৯ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। জানা গিয়েছে,এবার থেকে বেসরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি সরকারি হাসপাতালে কত বেড খালি আছে সেই তথ্য এগিয়ে বাংলা ওয়েবসাইটে ঘণ্টায় ঘণ্টায় আপডেট করা হবে। রোগীর পরিবারকে জানাতেই এই তথ্য় প্রকাশ করা হবে।

 সম্প্রতি রাজ্য় সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যাঁদের করোনার মৃদু উপসর্গ রয়েছে তাঁদের হাসপাতালের পরিবর্তে সেফ হাউসে রাখা হবে। ইতিমধ্য়েই রাজ্য সরকার ১০৪টি সেফ হাউসের ব্যবস্থা করছে। প্রশ্ন উঠেছে, তবে কী রাজ্য়ে করোনা চিকিৎসার বেডের অভাব। তাই সেফ হাউসের ব্যবস্থা করছে রাজ্য় সরকার। যদিও এই অভিযোগ নস্যাৎ করেছে রাজ্য়। পাল্টা রাজ্য় সরকারের দাবি, বাংলায় করোনা চিকিৎসার জন্য় ৮০ শতাংশ বেড এখনও ফাঁকা রয়েছে। তাই বেড নিয়ে রোগীদের আশঙ্কার কিছু নেই।