Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Skoch Gold Award: পর্যটনে আন্তর্জাতিক স্কচ গোল্ড অ্যাওয়ার্ড পেল রাজ্য, সবাইকে শুভেচ্ছা মমতার

 

কোভিড পরিস্থিতিতে ভাল কাজ করার জন্য আন্তর্জাতিক 'স্কচ গোল্ড' পুরষ্কার পেল পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন দফতর। টুইট করে জানিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।   

West Bengal tourism department receive skoch gold Award says CM Mamata Banerjee RTB
Author
Kolkata, First Published Nov 14, 2021, 9:58 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আন্তর্জাতিক 'স্কচ গোল্ড' পুরষ্কার ( skoch gold Award)পেল পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন দফতর। টুইট করে জানিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। কোভিড পরিস্থিতিতে ভাল কাজ করার জন্য মূলত এই পুরষ্কার অর্জন করেছে বাংলার পর্যটন দফতর (West Bengal tourism department)। 

 

 

আরও পড়ুন, Satabdi Roy: 'দ্য জঙ্গিপুর ট্রায়াল'-র শুটিংয়ে শতাব্দী, ফের রুপোলি পর্দায় অভিনেত্রী-সাংসদ

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায় টুইট করে বলেছেন, সবাইকে আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, 'কোভিড পরিস্থিতিতে ভালো কাজ করার জন্য পশ্চিমবঙ্গের পর্যটন দফতর স্কচ গোল্ডেন পুরষ্কার পেয়েছে। দফতরের সমস্ত ক্রমীদের অভিনন্দন।' তবে এই প্রথমবার নয়, এর আগেও সরকারি ক্ষেত্রে ভালো কাজের জন্য প্ল্যাটিনাম থেকে গোল্ড চার চারটি স্কচ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। বিভিন্ন সরকারি দফতরগুলিকে উৎসাহ দিতে তাঁদের কাজের ভিত্তিতে পুরষ্কার দেয় স্কচ নামক একটি বেসরকারি সংস্থা। গ্রামীণ এলাকায় অনলাইনে ট্রেড লাইসেন্স দেওয়া, শিল্প সাথী, অনলাইনে বিভিন্ন ডিড নথিভুক্তিকরণ এবং শহরাঞ্চলে নানাবিধ সার্টিফিকেটে অনলাইনে নবীকরণে সরকার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়ে নিয়েছিল। সেই রাজ্যে এসেছিল এই অ্যাওয়ার্ড। অপরদিকে, শুধু পর্যটন দফতরই নয় স্কচ গোল্ড পুরষ্কার পেয়েছে রাজ্যের স্কুল এবং উচ্চ শিক্ষা দফতরও। এই সম্মান পাওয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই খুশি রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। তনি দফতরের সকলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন, Goa: অর্পিতার আসনে ফেলেইরিও, তৃণমূলের নয়া রাজ্যসভার সাংসদ গোয়ার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

উল্লেখ্য, ১৬ নভেম্বর স্কুল খুলতে চলেছে রাজ্য়ে। কোভিড পরিস্থিতিতে দীর্ঘ দিন বন্ধ ছিল স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্য়ালয়। সেই সময় যাতে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় কোনও অসুবিধা না হয়, সেজন্য উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের পড়ুয়াদের ট্যাব কেনার জন্য অর্থ দিয়েছিল রাজ্য। কোভিড পরিস্থিতিতেও মিড ডে মিল দেওয়া হচ্ছিল। এর পাশাপাশি পড়ুয়াদের উচ্চশিক্ষার সুবিধার্থে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড দেওয়া কথাও ঘোষণা হয়েছিল সরকারের তরফে। সার্বিকভাবে রাজ্যের শিক্ষা দফতরের পদক্ষেপ প্রশংসা পেয়েছিল বিভিন্ন মহলে। এরই মধ্যে এই পুরষ্কার পাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। স্কুল খোলার আগেই এই স্বীকৃতি পাওয়া খুবই খুশি খবর। প্রসঙ্গত, আগামী ১৬ নভেম্বর থেকেই রাজ্যে খুলে যাচ্ছে স্কুল। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে রাজ্যে স্কুল খোলার বিরুদ্ধে যে মামলা দায়ের করা হয়েছিল তা খারিজ করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট । হাইকোর্টের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। পাশাপাশি পড়ুয়াদের স্কুলে আসার জন্য কোনও জোর দেওয়া হবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন তিনি।সকাল সাড়ে ন'টা থেকে বিকেল সাড়ে তিনটে পর্যন্ত নবম ও একাদশ শ্রেণি এবং ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে চারটে পর্যন্ত দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর ক্লাস নেওয়া হবে। করোনাবিধি মেনেই স্কুল চলবে। 

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios