শুভজিৎ পুততুণ্ড, বারাসত-করোনার থাবায় পাঁচ মাসেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে কলকাতার জনপ্রিয় বিনোদন পার্কগুলি। করোনার আতঙ্কে বিনোদন থেকে নিজেদের বিরত রেখেছেন সাধারণ মানুষ। এই অবস্থায় কাজ হারানোর আশঙ্কা করছেন নিউটাউনের অ্য়াকোয়াটিকা পার্কের শ্রমিকরা। মঙ্গলবার অ্যাকোয়াটিকার গেটের বাইরে নোটিস দেখে কাজ হারানোর আশঙ্কা করছেন  শ্রমিকরা।
আরও পড়ুন-রাতভর বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন শিলিগুড়ি, জলবন্দি অবস্থায় স্থানীয় বাসিন্দারা

জানাগেছে , করোনার জেরে লকডাউন ঘোষণার পর কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের জানায়, এই পরিস্থিতিতে তাদের এখন অফিসে আসতে হবে না। কিন্তু প্রতিমাসের বেতন তাঁদের দিয়ে দেওয়া হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। মার্চ মাসের বেতন সঠিকভাবে দেওয়া হলেও তারপর থেকে প্রতিমাসে মাত্র ২৫ শতাংশ বেতন দেওয়া হত। বিষয়ি কর্তৃপক্ষকে জানায় শ্রমিকরা। কিন্তু তাঁরা কোনও সদুত্তর পাননি।

প্রণব স্য়ার যা পড়াতেন মনে থাকত, স্মৃতি চারণার প্রাক্তন ছাত্র

এই অবস্থায় কয়েকদিন আগে অ্য়াকোয়াটিকার বাইরে অনুমতি ছাড়া শ্রমিকদের নির্দেশ দিয়ে নোটিস দেয় কর্তৃপক্ষ। এরপরই কাজ হারানোর আশঙ্কা করছেন শ্রমিকরা। অভিযোগ, তাঁদের কাজ করতে না দিয়ে বাইরে থেকে লোক এনে কাজ করানো হচ্ছে। প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখায় কাজ হারানো শ্রমিকরা। এই অবস্থায় আগের মতই ২৫ শতাংশ বেতন এবং মাসে ১৫ দিনের কাজের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। তাঁদের দাবি পূরণ না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন শ্রমিকরা।

রেশনের চালে পোকা, নিম্নমানের সামগ্রী, উত্তেজনা ভাতারে