করোনা ভাইরাস নিয়ে ভুয়ো পোস্টের জেরে এবার গ্রেফতার করা হল কাঁকিনাড়ার এক যুবককে। অভিযোগ, ফেসবুকে এক যুবকের ছবি দিয়ে তাকে করোনা আক্রান্ত হিসাবে দেখিয়েছে অভিযুক্ত। শুধু ওই যুবকই নয়, তাঁর সন্দেহের তালিকায় ছিল ওই যুবকের পরিবারও। যার জেরে যুবক সহ ওই সন্দেহভাজন পরিবারের সদস্যদের অ্যাম্বুলেন্সে করে স্থানীয় হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে নিয়ে যায় স্বাস্থ্য কর্মীরা। যদিও সন্দেহভাজন ওই যুবক সহ তার পরিবারের সদস্যরা কেউই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের আক্রান্ত হয়নি বলে জানিয়ে দেন ডাক্তাররা।

বার বার বলেও কোনও কাজ হয়নি। করোনা ভাইরাস নিয়ে অযথা গুজব রটাতে বারণ করেছে রাজ্য় সরকার। কিন্তু কে শোনে কার কথা। শনিবার সেরকমই এক ঘটনার সাক্ষী থাকল ব্যারাকপুর। যেখানে এক অতি উৎসাহী যুবকের সন্দেহের শিকার হল এক পুরো পরিবার। ইতিমধ্য়েই ওই যুবকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্য়বস্থা নিয়েছে প্রশাসন। ফেসবুকে পোস্ট করে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে যুবককে। উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়া এলাকা থেকে ওই যুবককে গ্রেফতার করে ভাটপাড়ার থানার পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে ধৃত যুবকের নাম রানা দেবনাথ।

রাজ্য়ে করোনা আক্রান্তের পরিসংখ্য়ান বলছে, উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়ায় এরকম কোনও করোনা আক্রান্তের ঘটনা ঘটেনি। যদিও করোনা আতঙ্কে জেরবার রাজ্য়বাসী ওই পোস্ট দেখতেই শেয়ার করা শুরু করে। যার জেরে কিছুক্ষণের মধ্য়েই সোশ্য়াল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় ওই পোস্ট। এই বিষয়ে বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত ভুয়ো খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলে সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করবে প্রশাসন । ধৃত যুবক রানা দেবনাথকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ভাটপাড়া থানার পুলিশ ।