শীতকালের অন্যতম ও মারাত্মক এক সমস্যা হল ম্যাসল ক্রাম্প। অনেক সময় ঘুমের মধ্যেই মারাত্মক টান পড়ে পেশির। অনেকের মুখেই মারাত্মক এই সমস্যার কথা শোনা যায়। ঘুমের মধ্যে পেশিতে টান ধরার পর দীর্ঘ সময় অবধি থেকে যায় পেশিতে ব্যথা। এমন অবস্থায় পা সোজা করা বা ভাঁজ করা অবধি অসম্ভব হয়ে পরে। জেগে থাকা অবস্থাতেও হতে পারে এই ম্যাসল ক্রাম্প তবে ঘুমের মধ্যেই হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। শুধু শীতেই নয় যে কোনও সময় হতে পারে এই সমস্যা। কেন ঘুমের মধ্যেই পেশীতে এমন টান ধরে? 

আরও পড়ুন- কারও আনে জিভে জল কারওবা চোখে, জেনে নিন কাঁচা লঙ্কার উপকারিতা

এই বিষয়ে গবেষকরা জানিয়েছেন, অতিরিক্ত পরিশ্রম, দীর্ঘ সময় বসে বা দাঁড়িয়ে থাকা, ভারী কোনও বস্তু তুলতে গিয়ে টান পরা, জল কম পান করা,  রক্তে পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেশিয়ামের ঘাটতির ফলে এই সমস্যা দেখা দেয়। তবে চটজলদি এই প্রচণ্ড ব্যাথা থেকে মুক্তি পাবেন কীভাবে! চিকিৎসকদের মতে, এই সমস্যায় প্রথমেই পেশিকে রিল্যাক্স করার ব্যবস্থা করতে হবে। এর ফলে পেশির প্রসারন ঘটবে ও ব্যাথাও কমে আসবে। যদি কাপ ম্যাসলে টান পরে তবে পা মেলে বসে হাত দিয়ে পায়ের আঙ্গুলগুলো নিজের দিকে টানার চেষ্টা করুন। 

আরও পড়ুন- যত্ন নিন শখের দাড়ির, কয়েকটি কৌশলে বদলে ফেলুন নিজের লুক

এছাড়া পেশি শক্ত হয়ে থাকলে হট ওয়াটার ব্যাগের সাহায্যে শেক দিন, দ্রুত আরাম পাবেন। এতো গেল চটজলদি মুক্তির উপায় তবে এই সমস্যা এড়িয়ে চলতে ডায়েটে পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম যুক্ত খাবার রাখুন। শাকসবজি, ফল, খেজুর দুধ ও মাংসও রাখতে পারেন। সেই সঙ্গে নিয়ম মেনে সারাদিনে প্রচুর জল পান করুন। এতে আপনার পেশির ফ্ল্যাক্সিবিলিটি বাড়বে। প্রয়োজনে শরীর ডিহাউড্রেট রাখার জন্য লবন-চিনি মিশ্রিত জলও পান করতে পারেন। অতিরিক্ত সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।