বর্তমানে পুরুষদের একমুখ দাড়ি রাখার চলছে ফ্যাশন। তবে এই একমুখ দাড়ি রাখার জন্য প্রয়োজন তার যত্নের। শুধুমাত্র সেভিং বন্ধ করে দিলেই তো গাল ভরা দাড়িতে মেকওভার হবে না। সঠিকভাবে যত্নও নিতে হবে দাড়ির। বিশেষ করে যেই পুরুষেরা নিজের লুক মাঝে মধ্যেই বদলে ফেলতে চান তারা দাড়ির কাটার বিষয়েও বেশি কিছু কৌশল মেনে চলেন। দাড়ির কাটের মধ্যে ভ্যান, ডাইক বা রয়্যাল বা সার্কল বিয়ার্ডে অত্যন্ত জনপ্রিয়। 

আরও পড়ুন- ১৪০ বছর আগে ক্রিসমাসে বানানো ফ্রুট কেক, উত্তরাধিকার সূত্রে সংরক্ষণ করে এই পরিবার

জানলে অবাক হবেন, মার্কিন এক সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, যে পুরুষেরা দাড়ি রাখেন, তাঁদের প্রতি মেয়েরা বেশি আকর্ষিত হয়। তাই নিশ্চয়ই একথা জানার পরে, সুন্দর একগাল দাড়ি রাখতে চাইবেন আপনিও। তবে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে যত্ন নেবেন শখের দাড়ির। প্রথমেই মনে রাখতে হবে, চুলের মতো দাড়িও নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে। কারণ প্রতিদিন কয়েক ত্বকের মৃত কোষ দাড়িতে জমা হয়। যা থেকে ব়্যাশের সৃষ্টি হয়। এই কারনেই দাড়িতে ইচিং-এর সমস্যা দেখা যায়।

আরও পড়ুন- নতুন নকশার কমোড বানিয়ে চর্চায় এই ভারতীয়, নেট দুনিয়ায় ভাইরাল এই টয়লেট সিটের ছবি

সুন্দর দাড়ি পাওয়ার জন্য চুলের মত দাড়িও আঁচড়ানোর প্রয়োজন। এর জন্য ব্যাবহার করতে পারেন বিশেষ চিরুনি। যা সহজেই কিনতে পাওয়া যায়। তবে দাড়ি পরিস্কার রাখার জন্য ছোট ব্রিশেলস-এর চিরুনি ব্যবহার করাই সবচেয়ে ভালো। এছাড়া দাড়ির শুষ্কতা ও চুলকানি দূর করার জন্য তেল ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার দাড়িতে থাকবে একস্ট্রা সাইন। পাশাপাশি নরমও থাকবে আপনার দাড়ি। এরজন্য নারকেল তেল, বেবি অয়েল, ভিটামিন-ই সমৃদ্ধি তেল অথবা এক্সট্রা ভার্জিন অয়েলও ব্যবহার করতে পারেন। 

আরও পড়ুন- মহিলাদের ছোট পোষাক ধর্ষণের কারণ, ইউসির সমীক্ষায় চাঞ্চল্যকর তথ্য

দাড়ি ঘনত্ব বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজন ট্রিমিং-এর। তাই নিয়মিত দাড়ি ছাঁটুন। তবে হরমোনজনিত সমস্যার জন্য অনেকের দাড়ির কম বৃদ্ধি হওয়ার সমস্যা থাকে। এরজন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। এছাড়া বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটে দাড়ির যত্ন নিতে বিয়ার্ড অয়েল পাওয়া যায় তাও ব্যবহার করতে পারেন। দাড়ি নরম রাখার জন্য চুলে দেওয়ার কন্ডিশনারও ব্যবহার করতে পারেন।