ছোটদের ঘর সুন্দর করে গুছিয়ে রাখা মোটেও সহজ কথা নয়। শিশু মন বলে কথা, তাই কখন তাদের কি সে আনন্দ, তা বোধহয় তারা নিজেরাও জানে না। জিনিসপত্র বা খেলনা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে বা ছুঁড়ে কখন যে কি করে তা বুঝে ওঠা দায়। তবে ছোট থেকেই বাড়ির খুদেটিকে জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখা শেখালে বড় হয়ে নিজেরাই গুছিয়ে রাখবে নিজের ঘর। তবে কি ভাবে সাজাবেন বাড়ির ছোট সদস্যটির ঘর। 
ছোটদের ঘর সাজানোর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল ঘরের রং। ছোটদের পছন্দ মত তার ঘরের রং করতে পারেন নীল, গোলাপী, হলুদ, সবুজ। এর উপর তার হাতের তৈরী কোনও কাজ তা কার্ড হোক বা আঁকা ছবি সেগুলি সাজিয়ে দিন ঘর। 
সেই সঙ্গে ঘরে রাখুন পর্যাপ্ত পরিমানে আলোর ব্যবস্থা। শোয়ার জায়গা বেশি উঁচুতে না থাকাই ভালো। বিছানায় পাতুন রঙিন চাদর। তার পছন্দের কোনও কার্টুন চরিত্রেরও সেটি হতে পারে।
ঘরের একদিকে অবশ্যই রাখুন ছোটদের খেলার জিনিসপত্র। সেখানে ওর একটা আলাদা জগৎ তৈরী করে দিন ৷ শিশু মনের বিকাশ ঘটাতে ওকে কিছুটা সময় নিজের মত করে খেলতে দিন। শুধু আড়াল থেকে নজর রাখুন যাতে কোনও বিপদ না হয়। 
বাচ্চার ঘরে অবশ্যই কালারফুল একটি শেলফ রাখুন। আর ওকেই তাতে ওর খেলনাগুলি গুছিয়ে রাখতে দিন। এতে করে ওর গুছিয়ে রাখার অভ্যাসও তৈরি হবে আর ঘর আগোছালো হয়েও থাকবে না।
সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, শিশুদের যত স্নেহ বা আদরে বড় করবেন। শিশুর মানসিক বিকাশও তত ভালো হয়। অতিরিক্ত শাসন, ভয় তাদের মানসিক বিকাশে বাধার সৃষ্টি করে।