করোনার প্রকোপ থেকে মুক্তি পেতে যা যা দরকার তা সবটাই করছেন  সকলেই । কিন্তু এটা জানেন কি করোনা থেকে মুক্তি পেতে আপনাকে সাহায্য করবে ড্রাগন ফল। ড্রাগন নামটা শুনলেই যেন ড্রাগনের কথা মনে পড়ে। কিন্তু এ ড্রাগন সেই ড্রাগন নয়। এটি একটি বিদেশি ফল। এখন যে কোন শপিং মলেই এই ফল পাওয়া যায়। এর উপকারিতাও রয়েছে অনেক বেশি। ড্রাগনের মধ্যে রয়েছে অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতাও। ড্রাগন ফলের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি। যা শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। ক্যান্সার  থেকে ডায়াবিটিস সারাতেও এই ফল ভীষণ কার্যকরী। সুতরাং করোনা লড়াইয়ের মোক্ষম অস্ত্র রয়েছে এই ফলে। দেখে নিন আর কি কি গুণ রয়েছে এই ফলের।

 

 

আরও পড়ুন-এই সময়টাতে যৌন মিলনের চাহিদা দ্বিগুণ বেড়ে যায়, জানাল গবেষণা...


বেশি পরিমাণ আঁশ থাকায় ড্রাগন খেলে রক্তে শর্করার পরিমাণ স্থিতিশীল থাকে। খাদ্য তালিকায় ড্রাগন থাকলে ডায়াবেটিসের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্যান্সার থেকে ডায়াবেটিস প্রতিরোধে খুবই কার্যকরী এই ফল। গর্ভবতী মায়েরাও খেতে পারেন সুস্বাদু এই ড্রাগন ফল। বয়সের ছাপ দূর করতে ত্বককে দৃঢ় রাখতে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের দরকার হয়। ভিটামিন -সি এর উপস্থিতির কারণে ড্রাগন ফলকে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের উৎস বলা হয়। ড্রাগন ফল ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে। এই ফলে ক্যারোটিন নামক উপাদান রয়েছে, যা শরীরে থাকা টিউমারকে ধ্বংস করে।

 

 

আরও পড়ুন-ভুঁয়ো খবরের সত্যতা যাচাই মাত্র ১ মিনিটে, আকর্ষণীয় নয়া ফিচার্স নিয়ে হাজির হোয়াটসঅ্যাপ...

রোগ প্রতিরোধের সমস্ত ক্ষমতাই রয়েছে এই ড্রাগন ফলে। বিশেষত প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে এই ড্রাগন ফলে। এই ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঠিক থাকে। নিয়মিত এই ফলটি খেলে আপনার শরীর স্বাস্থ্য ভাল থাকবে। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ড্রাগন ফল রাখুন। ড্রাগন ফলে আঁশের পরিমাণ অনেক বেশি থাকে, যার ফলে পরিপাক প্রক্রিয়া ঠিক ভাবে কাজ করে। যা বদহজমেও কার্যকরী। খারাপ কোলেস্টেরল কমানোর মাধ্যমে হৃদযন্ত্র ভাল রাখে এই ফল। ড্রাগন ফল খেলে উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমে। সুতরাং মহামারী থেকে বাঁচতে প্রতিদিনই পাতে রাখুন ড্রাগন ফল।