আজ ৮ মার্চ। আন্তর্জাতিক নারী দিবস। সারা  বিশ্ব জুড়ে এই দিনটি মহা সমারোহে পালন করা হয়।  আর সেই তালিকাতে রয়েছে আমাদের ভারতও। তবে বছরের ৩৬৫  দিনের মধ্যে নারীদের জন্য এই বিশেষ একটা দিন কেন। এর পিছনেও রয়েছে একটা বড় ইতিহাস। জেনে নিন নারী দিবসের ইতিহাস।

আরও পড়ুন-ক্রমশ ভারতে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মাস্কের চাহিদা...


সারা বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন জায়গায় এই দিনটি ধুমধাম করে পালন করা হয়। নারীদের প্রতি শ্রদ্ধা, তাদের কাজের প্রশংসা, ভালবাসা প্রকাশ করে এই দিনটিকে পালন করা হয়। মহিলাদের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক সাফল্য অর্জনের উৎসব হিসেবই পালন করা হয় এই দিন। ১৯০৯ সালে প্রথম পালন করা হয়  আন্তর্জাতিক নারী দিবস। ওই বছরেই প্রথম ২৮ ফেব্রুয়ারি আমেরিকায় নারী দিবস পালন করা হয়। 

আরও পড়ুন-ফোন করলেই করোনা সচেতনতা, রিং এর বদলে শোনা যাচ্ছে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের সতর্কবার্তা...

আরও পড়ুন-ক্ষতিকর রাসায়নিক নয়, রঙ খেলায় মেতে উঠুন ভেষজ রঙ দিয়ে...


১৯১০ সালে কোপেনহেগেনের উদ্যোগের পর, ১৯ মার্চ অস্ট্রিয়া, ডেনমার্ক, জার্মানি এবং সুইৎজারল্যান্ডে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করা হয়েছিল। নারীদের  কাজের অধিকার, বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ এবং কাজের বৈষম্যের অবসানের জন্য প্রতিবাদ করেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। একই সঙ্গে রাশিয়ান মহিলারাও প্রথমবার ২৮ ফেব্রুয়ারি 'রুটি ও শান্তি'র দাবিতে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিলেন । ইউরোপের নারীরা ৮ মার্চ শান্তি বিষয়ক কার্যক্রমকে সমর্থন করে বিশাল মিছিলে নামেন। আনুষ্ঠানিকভাবে জাতিসংঘ ১৯৭৫ সালের ৮ মার্চ দিনটিকে প্রথম আন্তর্জাতিক নারী দিবস হিসেবে ঘোষণা করে।  জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ সদস্য রাষ্ট্রদের নারী অধিকার ও বিশ্ব শান্তি রক্ষার জন্য ১৯৭৭ সালে জাতিসংঘ দিবস হিসাবে ৮ মার্চকে ঘোষণা করার আহ্বান জানানো হয়।