নতুন নতুন যাঁরা রান্না শিখছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে এই ভুলটি হওয়া খুবই অস্বাভাবিক এমনটা নয়। প্রথম প্রথম রান্নায় প্রত্যেকটা উপকরণের পরিমাণ কম-বেশি হতেই পারে। বিশেষত, রান্নায় নুন যদি কম হয়, তাহলে খাওয়ার পাতে তা যোগ করে নেওয়া যেতে পারে, কিন্তু রান্নায় নুন বেশি হলে সেই অতিরিক্ত নুন-এর মাত্রা ঠিক করতে ব্যবহার করতে পারেন এই সহজ ঘরোয়া টোটকা। দেখে নিন সেগুলি কী কী-

১) সেদ্ধ আলু-  তরকারি বা মাছের ঝোলে নুন বেশি হয়ে গেলে তাতে কয়েকটুকরো সেদ্ধ করা আলু দিয়ে দিন। দেখবেন নুনের কটাভাব কমে যাবে। 

২) দই বা দুধ বা ফ্রেশ ক্রিম- তরকারি নুনের ভাব কমানোর জন্য ব্যবহার করতে পারেন দই বা দুধ বা ফ্রেশ ক্রিম। দুগ্ধজাত এই খাবারগুলি খুব সহজেই রান্নায় অতিরিক্ত নুনের পরিমাণ কমিয়ে আনা যেতে পারে।

৩) ভিনিগার ও চিনি-  তরকারিতে যদি নুনের মাত্রা অতিরিক্ত হয়ে যায় তাহলে এক চামচ ভিনিগার এবং তার সমপরিমাণ চিনি যোগ করুন। এই মিশ্রণের সাহায্যে খাবারে নুনের মাত্রা সঠিক রাখা সম্ভব। 

৪) পেঁয়াজ- কাঁচা বা ভাজা পেঁয়াজ তরকারিতে নুনের কটাভাব দূর করতে সাহায্য করে। সেক্ষেত্রে পেঁয়াজটি খানিকক্ষণ তরকারিতে রেখে দিয়ে তারপর তুলে নিতে হবে। দেখবেন খাবারে অতিরিক্ত নুনের ভাব চলে গিয়েছে। 

৫) ময়দার বল- খাবারে নুন বেশি হলে তা দূর করতে পারে কয়েকটা ময়দার বল। সেক্ষেত্রে তরকারির পরিমাণের ওপর নির্ভর করে ময়দার বল তৈরি করে নিতে হবে। এরপর খাবারটি পরিবেশনের আগে তা অবশ্যই সরিয়ে নিতে হবে। দেখবেন নুনের কটাভাব নিমেষেই উধাও হয়ে গিয়েছে।