ঘুমের মধ্যে নাক ডাকা খুবই বিব্রতকর। এমন একজন মানুষের পাশে সারারাত ঘুমনো খুবই কষ্টসাধ্য। তবে মনে রাখবেন যেই ব্যক্তির এই সমস্যা রয়েছে তাঁর জন্য এটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। আপাতদৃষ্টিতে এটি সাধারণ সমস্যা মনে হলেও এটি বেশ ক্ষতিকর। এমনকি এই সমস্যায় যাঁরা ভুগছেন তাঁদের কম-বেশী হৃদরোগের সমস্যা রয়েছে বলেও মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। 

আরও পড়ুন- সহজলভ্য এই ফলের রয়েছে এত গুণ, জানলে অবাক হবেন

এর উপরে করা এক গবেষণা অনুযায়ী, মধ্যবয়স্ক পুরুষ ও মহিলাদের মধ্যে এই সমস্যা খুব বেশি পরিমানে দেখা যায়। শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা বা শ্বাস-প্রশ্বাসের গতিতে বাধার সৃষ্টি হলে এই সমস্যা দেখা যায়। গলার মাংসপেশীতে অতিরিক্ত চর্বি বা শ্বাসযন্ত্র সরু হলেও এই সমস্যা দেখা যায়। থাইরয়েডের সমস্যা বা হরমোনের সমস্যার জন্য নাক ডাকার সমস্যা বৃদ্ধি পায়। নাক ডাকা সমস্যাকে কখনই অবহেলা করা উচিৎ নয়। ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে এই সমস্যার সমাধান করা বাঞ্ছনীয়। তবে এই সমস্যা ঘরোয়া উপায়েও খুব সহজেই এবং ঘরোয়া উপায়ে এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। 

আরও পড়ুন- সহজ এই উপায়ে জেনে নিন পানীয়ের দুধটি ভেজাল কি না

আমারা সকলেই জানি হলুদ হল প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। একটি পাত্রে ১ চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা, জল একসঙ্গে ফুটিয়ে তার সঙ্গে মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে, প্রতিদিন ঘুমোতে যাওয়ার আগে পান করলে নাক ডাকার সমস্যা দূর হয়ে যাবে। আরেকটি হল গাজর ও আপেলের রস। গাজর, আপেল, আদা একসঙ্গে বেটে ঘন পেস্ট বানিয়ে এরসঙ্গে পাতিলেবুর রস মিশিয়ে পান করলে নাক ডাকার সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। তবে অতিরিক্ত সমস্যায় অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।