আবহাওয়া বদলাচ্ছে। একটু একটু করে জাকিয়ে বসছে শীত। তার সঙ্গে সঙ্গেই ঘরে ঘরে বাড়ছে সর্দি-কাশির সমস্যা। আর এই ঠান্ডা লাগার থেকেই শুরু হয় গলা ব্যথা। গলা ব্যথা হলেই ঢোক গিলতে অসুবিধা হয়। এই ব্যথা সাধারণত টনসিলের কারণেই হয়। আর টনসিলের ব্যথা হলেই আমরা অ্যান্টিবায়োটিকের উপর ভরসা রাখি। কিন্তু অ্যান্টিবায়োটিক ছাড়াও ঘরোয়া উপায়ে এই টনসিল সারানো যায়। জেনে নিন ঘরোয়া পদ্ধতিতে কীভাবে টনসিল কমানো যায়।

আরও পড়ুন-চিকিৎসকের কাছে গেলে ভুলেও এই বিষয়গুলি লুকাবেন না, ঘটতে পারে মহা বিপদ...

গলা ব্যাথা শুরু হলে গরম জলে সামান্য নুন দিয়ে কুলকুচি করুন। নুন-জল টনসিলের সংক্রমণ রোধ করে ব্যথা কমতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, উষ্ণ গরম জল দিয়ে কুলকুচি করলে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের আশঙ্কাও অনেক কমে যায়

এক কাপ গরম জলে আধ চামচ চা পাতা, এক চামচ মধু দিয়ে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। হালকা উষ্ণ অবস্থায় ধীরে ধীরে ওই চা পান করুন। চা-এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমস্ত ক্ষতিকর জীবাণু ধ্বংস করে দেয়। দিনে কয়েকবার এই চা পান করলে অনেকটা আরাম পাবেন।

আরও পড়ুন-গুগল প্লে স্টোরে এবার হাজির 'আধার অ্যাপ', জেনে নিন সুবিধাগুলি...

এক কাপ দুধে এক চিমটে হলুদ মিশিয়ে নিন। পারলে ছাগলের দুধ দিয়ে করলে অনেক বেশি উপকার পাওয়া যাবে। তবে ছাগলের দুধ না পেলে গরুর দুধ দিয়েও করতে পারেন। হালকা উষ্ণ অবস্থায় এই দুধ খেলে টনসিলের  সংক্রামণ অনেকটাই কমবে।

দেড় কাপ জলে কিছুটা পরিমাণ আদা কুচি দিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নিন। দিনে অন্তত ২-৩ বার এই আদা জল পান করুন। আদার মধ্যে থাকা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান সংক্রমণে বাঁধা দেয়। এর সঙ্গে গলার ব্যথাও ধীরে ধীরে কমে যায়।