ফুল দিয়ে ত্বকের যত্ন। কেবল ত্বক নয়, গাঁদা ফুলে মেলে আরও নানা সমস্যার সমাধান। তাই কেবলই ওষুধের ওপর নির্ভর করে নয়, ফুলের গুণাগুণ জানুন। প্রতিদিন বাড়িতে পুজোর জন্য গাঁদা ফুল আনা হয়, কিংবা কারুর বাড়তে আবার ফুলের গাছও রয়েছে। তাদের জেনে রাখা প্রয়োজন, গাঁদা ফুল নষ্ঠ নয়, তা থেকে মিলতে পারে শরীরের নানা সমস্যার হাল।

জেনে নিন কী কী গুণ থাকে গাঁদা ফুলে। 
১. ক্ষত স্থানে গাঁদা ফুলের পাতার রস লাগালে সেই জায়গা সহজেই সেড়ে ওঠে। কোনও জায়গায় যদি কেটে যায়, তবে সেখানে এই রস লাগিয়ে রাখলে রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যায়। 
২. কানের সমস্যায় গাঁদা পাতার রস লাগালে তা সেড়ে ওঠে। বিশেষ করে শিশুদের এই সমস্যা দেখা যায়। কানের মধ্যে জল জমে যন্ত্রণা, তা থেকে রস পড়ার সমস্যা দেখা যায়। তাতে এই টোটকা ভিষণভাবে কাজ করে।
৩. ক্যান্সার সাড়াতে সাহায্য করে গাঁদা ফুল। গাঁদা ফুলের রস ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এই ফুল ভালো করে ধুয়ে তার রস করে নিয়ে এক চামচ খেয়ে ফেলতে হবে। 
৪. টিউমারের সমস্যা বাড়তে দেয় না। শরীরে যদি টিউমার থাকে তবে তা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে গাঁদা ফুল। 
৫. গাঁদা ফুলের চা খেলে ঋতুস্রাব নিয়মিত হয়। অনেকেই অনিয়মিত ঋতুস্রাব না হওয়ার কারণে কষ্ট পেয়ে থাকেন, তাদের জন্য গাঁদা ফুল মোক্ষম ওষুধ।