Asianet News Bangla

মহামারির আকার ধারণ করোনা ভাইরাসের, একদিনে বলি ২৪২ জন

 

  • ক্রমশই যেন ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা
  • সার্সের থেকে ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে এই করোনা ভাইরাস
  • একদিনে ২৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়
  •  ইতিমধ্যেই এই রোগকে মহামারি বলে চিহ্নিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
one day 242 people are died in Corona Virus
Author
Kolkata, First Published Feb 13, 2020, 12:18 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

 গোটা বিশ্বের কাছে এক ভয়ঙ্কর নাম এই করোনা। এই নামটা শুনলেই প্রত্যেকেই যেন আতঙ্কিত। মুহূর্তের মধ্যে একজনের থেকে আরেকজনের শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস।  মানুষের নিঃশ্বাস প্রশ্বাসের সঙ্গেই ছড়িয়ে যাচ্ছে এই রোগের জীবানু। কোনওভাবেই আটকানো যাচ্ছে না এই ভাইরাসকে।  সার্সের থেকে ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে এই করোনা ভাইরাস। ক্রমশই যেন ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা। ১০০ নয়, বরং ১০০-র চাইতেও প্রায় দ্বিগুণ হয়ে দাঁড়িয়েছে একদিনের মৃতের সংখ্যা। একদিনে ২৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। যার ফলে মৃতের সংখ্যা এখন বেড়ে দাড়িয়েছে ১৩১০।  

আরও পড়ুন-নয়া নামকরণ করোনা ভাইরাসের, রিপোর্ট বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার...

গত সোমবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল ১০৩ জনের। এতদিনে এটাই ছিল একদিনে সর্বাধিক মৃত্যুর রেকর্ড। এবার সেই রেকর্ডকেও ছাপিয়ে গেল নয়া রেকর্ড। নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যাও হু হু করে বাড়ছে। বুধবার আরও ১৪,৮৪০ জনের শরীরের মিলেছে এই ভাইরাস। যার ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ৪৮, ২০৬। ইতিমধ্যেই এই রোগকে মহামারি বলে চিহ্নিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। 

 

করোনা ভাইরাসের আঁতুড়ঘর চিন। এই নিয়েই উদ্বেগ ছড়াচ্ছে ক্রমশ। চিকিৎসক মহলের দাবি, আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যুর হার সার্সের সময় অনেক বেশি ছিল।  করোনা ভাইরাসের ফলে যে বিপুল সংখ্যক মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন তার তুলনায় মৃত্যুর হার যথেষ্ঠই কম।  কিন্তু এই ভাইরাস অতি দ্রুত ছড়াচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে একাধিক নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফ থেকেও জানানো হয়েছে কোনও ভারতীয় যেন চিনে না যায়।   অন্যদিকে করোনা ভাইরাস নিয়ে জাতীয় স্তরে হেল্পলাইন নম্বরও চালু করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস 'ইউহান করোনা ভাইরাস' বা 'চিনা করোনা ভাইরাস নয়', এবার নয়া নামকরণ হল করোনা ভাইরাসের। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী এই করোনা ভাইরাসের অফিশিয়াল নাম 'কোবিড-১৯'।  এই আতঙ্কের মধ্যে সুখবর শুনিয়েছে  বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা। দেড় বছরের মধ্যেই এই ভাইরাসের প্রতিষেধক টিকা আবিষ্কার করে ফেলবেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু তাতেও কিছু হচ্ছে না । মৃত্যু সংখ্যা যেন  লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েই চলেছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios