রূপচর্চার জন্য আমরা প্রত্যেকেই নানা ধরনের প্রসাধনী দ্রব্য ব্যবহার করে থাকি। ফেসওয়াশ থেকে শুরু করে চুলের যত্ন সবেতেই বিভিন্ন রকমের কৃত্রিম জিনিস ব্যবহার করি। ইদানিং সৌন্দর্য চর্চায়  টি-ট্রি অয়েল খুবই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।  ত্বক হোক বা চুল সবকিছুরই চাই বাড়তি যত্ন। এবং ত্বকের যত্নে বিভিন্ন ধরনের অয়েল আমরা ব্যবহার করে থাকি। ঠিক তেমনই একটি এসেনসিয়াল অয়েল হল টি-ট্রি অয়েল।এই অয়েলের অনেক  গুণাগুন রয়েছে।  টি-ট্রি অয়েলের মধ্যে অ্যান্টি ভাইরাল, অ্যান্টি ফাঙ্গাল, অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য গুলি রয়েছে।  যা ত্বকের জন্য অনেক উপকারী।রুক্ষ ত্বকের জন্য বিশেষ উপকারী এই অয়েল। জেনে নিন ত্বকের যত্নে টি-ট্রি অয়েলের উপকারিতা।

আরও পড়ুুন-বাড়ি ফিরেও অফিসের কাজ করছেন, অজান্তেই ঘটতে চলেছে বড় বিপদ...

ত্বকের যত্নে টি-ট্রি অয়েল

শীত চলে এসেছে। এমনিতেই শীতকালে ত্বকের মধ্যে টানটান ভাব শুরু হয়ে গেছে। আর যাদের শুষ্ক ত্বক তারা আরও বেশি সমস্যায় পড়েন। রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে ময়েশ্চারাইজারের সঙ্গে ৩-৪ ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিন। তারপর সারা মুখে ভাল করে লাগিয়ে শুয়ে পড়ুন।

আরও পড়ুন-ডায়াবেটিস থেকে কোলেস্টেরল, নিয়ন্ত্রণে রাখতে কার্যকরী ধনেপাতা...

ব্রণ সারাতেও খুবই উপকারী টি-ট্রি অয়েল। যারা দীর্ঘদিন ধরে ব্রণর সমস্যায় ভুগছেন  তারা অবশ্যই ট্রাই করতে পারেন এই তেল। একটি তুলোর মধ্যে সামান্য জল দিয়ে কয়েক ফোঁটা এই তেল দিয়ে ব্রণর উপর লাগিয়ে দিন। তারপর কিছুক্ষণ পরে  ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। ভাল করে মুখ মুছে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

যাদের মুখে ট্যান পরে গেছে তারাও এটি লাগালে উপকার পাবেন। একটি বাটিতে সামান্য বেসন, অ্যালোভেরা জেল, মধু , এবং কয়েক ফোঁটা টি-ট্রি  তেল নিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে সারা মুখে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।