আসতে চলেছে গ্রীষ্মকাল আর তার আগেই রোদে ঘুরে হাতে পায়ে ট্য়ান পরে গিয়েছে! সান ট্যানিং-এর সমস্যায় বেশি ভুগতে হয় ছাত্র-ছাত্রী এবং যাদের দীর্ঘক্ষণ রোদে থাকতে হয়। যদিও আমাদের শরীরে সূর্য রশ্মি প্রয়োজন তবে তা অতিরিক্ত সময় হলেই ত্বকে ট্যান পরে কালো দাগ বসে যায়। যার থেকে রক্ষা পাওয়া খুব কষ্টকর হয়ে পরে। বাজারে প্রচুর ট্যান ক্লিয়ার করার প্রোডাক্ট পাওয়া গেলেও ঘরোয়া কিছু উপায়ে আপনি এর থেকে সবচেয়ে ভালো উপকার পাবেন। তবে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে ঘরোয়া উপায়ে সান ট্যান থেকে মুক্তি পাবেন।

আরও পড়ুন- চোখের ভিতরে ট্যাটু, মারাত্মক যন্ত্রণায় শেষমেশ ভয়াবহ পরিণতি সুপার মডেলের

আরও পড়ুন- ওজন কমিয়ে পান ছিপছিপে চেহাড়া, রইল অবর্থ্য টোটকা

দই এবং টমেটো মাস্ক- টমেটোতে প্রাকৃতিক ব্লিচ থাকে, তাই এর রস ট্যানিং অপসারণ করতে ব্যবহৃত হয়। ঘরোয়া উপায়ে ট্যান দূর করতে, একটি পাত্রে দইটি নিয়ে তাতে টমেটো বেটে খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপরে এই প্যাক হাতে পায়ে লাগিয়ে রাখুন। প্রয়োজনে আপনি  টমেটো পিউরির সঙ্গে চন্দনের গুঁড়োও মিশিয়ে নিতে পারেন। এটি ত্বকে লাগিয়ে রাখতে হবে, শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক কেবল সান ট্য়ান দূর করে না পাশাপাশি ত্বকে রক্ত ​​সঞ্চালনও বাড়ায়।

অ্যাপল সিডার ভিনেগার এবং রক সল্ট- ভিনেগার অনেক ক্ষেত্রেই বিউটি প্রোডাক্ট হিসেবে ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে চুলে ও কালো দাগ দূর করতে। তাই সান ট্যান দূর করতেও ভিনিগার ব্যবহার করা যেতে পারে। এরজন্য এক চা চামচ রক সল্টের সঙ্গে আধ চা চামচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর এক বাটি হালকা গরম জলে ভিনেগার এবং রক সল্টের মিশ্রণটি দিয়ে দিন। তুলোয় করে ট্যান পরা ত্বকে এই জল দিয়ে হালকা করে ঘষতে থাকুন। এরপর স্ক্রাব করে আবার ধুয়ে ফেলুন।

আরও পড়ুন- আর কেমিক্যাল নয়, লোমহীন ত্বক পেতে বাড়িতেই সহজে করে নিন ওয়াক্স

শসা এবং লেবুর রস- ট্যান দূর করতে অর্ধেক শসা ঘষা এবং অর্ধেক পাতিলেবু কেটে তার রস মিশিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণটি ট্যান পরা ত্বকে লাগান। এটি ১৫ থেকে ২০ মিনিট অবধি রেখে তারপর ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।

কমলা লেবুর খোসা এবং অল্যোভেরা জেল- কমলা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ, যা ত্বকের জন্য অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট হিসাবে কাজ করে। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতেও সহায়তা করে। ট্যান দূর করতে বাড়িতে কমলা লেবুর খোসা শুকিয়ে গুঁড়ো করে রাখুন। এরপর এই গুঁড়োর সঙ্গে তাতে এক চা চামচ তাজা অল্যোভেরা জেল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি দিয়ে ট্যান পরা ত্বকে লাগিয়ে স্ক্রাব করুন, তারপরে ৩০ থেকে ৪০ মিনিটের জন্য রেখে দিন। পরে ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।

তবে অনেক বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে হাত ও পায়ে মেকআপ ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে ট্যানিং থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। ফাউন্ডেশন অতিবেগুনী রশ্মিকে সরাসরি ত্বকে প্রবেশ করতে বাধা দেয় এবং ত্বকের সম্পূর্ণ ক্ষতি রোধে সানস্ক্রিনের ব্যবহার করারও পরামর্শ দেন। তবে ট্যান পরা খানিক রোধ করা যায়।