চলতি বছরে বিশ্ব পরিবেশ দিবসের থিম হল ইকোস্টিস্টেম রেস্টোরেশন। এই বছরের আয়োজক দেশ হল পাকিস্তান। ২০২০ সালে বিশ্ব পরিবেশ দিবসের থিম হল বায়োডাইভারসিটি। আয়োজক দেশ কলম্বিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, প্রায় দশ লক্ষ জীববৈচিত্র্য বিলুপ্তির পথে। জীববৈচিত্র্য রক্ষায় এর চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময় আগে কখনও আসেনি। গোটা বিশ্বের জীববৈচিত্র্যের প্রায় ১০ শতাংশ রয়েছে কলম্বিয়ায়। এমনকী অ্যামাজন রেন ফরেস্টেরও একটা বড় অংশ রয়েছে কলম্বিয়ায়। নানা ধরনের পাখি থেকে অর্কিড, প্রজাপতি, মাছ, উভচর বৈচিত্র্যের নিরিখে কলম্বিয়ার স্থান দ্বিতীয়।  

 

 

আজ ৫ জুন। বিশ্ব পরিবেশ দিবস। তবে একটি বিশেষ দিন নয়, বিশ্ব প্রকৃতিকে কৃতজ্ঞতা জানানোর জন্য প্রতিটি দিনই বিশ্ব পরিবেশ দিবস। গোটা দেশ জুড়ে আজকের দিনে পালিত হয় এই বিশ্ব পরিবেশ দিবস। এই বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালনের পিছনে একটাই উদ্দেশ্য রয়েছে। সেটা হল পরিবেশ নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। সালটা ১৯৭৪। রাষ্ট্রপুঞ্জ দ্বারা পালিত হয়েছিল এই বিশেষ দিনটি। এই দিনটির বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। কেন আজকের দিনেই পালিত হয় বিশ্ব পরিবেশ দিবস, জেনে নিন এই বিশেষ দিনটির গুরুত্ব।

 

 

ইকোস্টিস্টেম পুনরুদ্ধারে রাষ্ট্রপুঞ্জের অবদান তুলে ধরে ৫ জুন অর্থাৎ আজই সেই বিশেষ দিন। প্রকৃতির অবদান বোঝাতেই এই বিশেষ দিন পালন করা হয়। প্রকৃতি যেভাবে নিঃস্বার্থ ভাবে আমাদের রক্ষা করে চলেছে তেমনই প্রকৃতিকেও রক্ষা করা আমাদের কর্তব্য। এবং সেই কারণেই সরকারের পক্ষ থেকেও পরিবেশ নিয়ে সচেতনতার উদ্যোগ নেওয়া হয়। তার মধ্যে করোনা ভাইরাস যেমন মানুষের জীবনে অভিশাপ হয়ে এসেছে তবে প্রকৃতির জন্য আশীর্বাদ। দীর্ঘ লকডাউনের ফলে জল ও বাতাসের দূষণ কমেছে। গত২ বছরে কার্বন নির্গমন কমেছে অনেকটাই।  ইতিমধ্যেই বিশ্বের প্রায় ৯৮ শতাংশ জীববৈচিত্র বিলুপ্ত  হয়ে গেছে। সকলে মিলে একটু চেষ্টা করলেই পরিবেশ রক্ষা করা সম্ভব হবে। যেভাবে পৃথিবীর উষ্ণতা বাড়েছ তাতে আগামী দিনে কোন সঙ্কটের সম্মুখীন হবে তা নিয়েই চিন্তায় পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।