সঞ্জীব কুমার দুবে, পূর্ব মেদিনীপুর:  যতদিন যাচ্ছে, আমফানের ত্রাণ বিলিতে দুর্নীতির অভিযোগ বিড়ম্বনা বাড়ছে রাজ্য়ের শাসকদলের।  ক্ষতিপূরণের তালিকায় গরমিলের অভিযোগে এবার তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে এফআইআর করলেন বিডিও। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের সুতাহাটায়।

আরও পড়ুন: স্ত্রীর দ্বিতীয় বিয়ের প্রতিবাদের 'মাশুল', শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে রহস্যমৃত্যু যুবকের

আমফানের ত্রাণ বিলিতে দুর্নীতির অভিযোগ উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। পরিস্থিতি সামাল দিতে কোথাও পঞ্চায়েত প্রধানকে বহিষ্কার, তো কোথাও আবার দলের নেতাদের শোকজ করেছে তৃণমূল। কিন্তু তাতে যে ক্ষোভ কমছে না! ঘুর্ণিঝড়ে যাঁরা সত্যিই ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন, তাঁদের সরকারি সাহায্য থেকে বঞ্চিত করার অভিযোগ উঠেছে রাজ্যের সর্বত্রই।

আরও পড়ুন: বিপদ বাড়ছে জনপ্রতিনিধিদের, ফের করোনায় আক্রান্ত হলেন এক তৃণমূল বিধায়ক

জানা গিয়েছে, রাজ্যের অন্যন্য জায়গার মতোই পূর্ব মেদিনীপুর সুতাহাটায়ও ঘুর্ণিঝড় আমফানের ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকায় তৈরির দায়িত্ব দেওয়া হয় পঞ্চায়েত প্রধানদের। শুধু তাই নয়, স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধানদের নিয়ে বৈঠকও করেন হলদিয়ার মহকুমাশাসক। কিন্তু তাতে কী! সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে আশদতলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান এক দম্পতির নাম ক্ষতিপূরণ প্রাপকদের তালিকায় ঢুকিয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ। শেষরক্ষা অবশ্য হয়নি। ঘটনাটি নজরে পড়ে যায় সুতাহাটার বিডিও-র। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে অভিযুক্ত পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।  এদিকে এই ঘটনায় দলের পঞ্চায়েত প্রধানের পাশেই দাঁড়িয়েছে তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব। তাঁদের হুঁশিয়ারি, থানায় অভিযোগ দায়ের করে বিডিও ঠিক কাজ করেননি।