মৎস্যজীবীদের জালে ধরা পড়েছে দৈত্যাকৃতি চিলশঙ্কর মাছ। খবর ছড়িয়ে পড়তে সময় লাগেনি। মাছটিকে স্রেফ চোখের দেখা দেখতে বাজারে ভিড় জমিয়েছিলেন বহু পর্যটক। হুলুস্থুলু কাণ্ড দিঘায়।

আরও পড়ুন: নাম বদলাচ্ছে 'মাদার ডেয়ারি', মিশে যাচ্ছে 'বাংলার ডেয়ারি'-র সঙ্গে

আরও পড়ুন: আগের তুলনায় দ্বিগুন, পশ্চিম মেদিনীপুরে জব ফেয়ারে চাকরি পেলেন ৩০৮ জন

দিঘার সমুদ্রে ফের হদিশ মিলল চিলশঙ্কর মাছের। কিন্তু এতবড় মাছ আগে কখনও ধরা পড়েনি। অন্তত তেমনই দাবি করেছেন মৎস্যজীবীরা। জানা গিয়েছে, রবিবার আলআমিন ৩ নামে একটি ট্রলারে চেপে মৎস্যজীবীরা মাছ ধরতে গিয়েছিলেন গভীর সমুদ্রে। তাঁদের জালেই ধরা পড়ে বিশালাকৃতি ওই চিলশঙ্কর মাছটি। মাছের ওজন এতটাই ছিল, সমুদ্র থেকে জালটিকে টেনে তুলতে গিয়ে মৎস্যজীবীদের রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়। সোমবার সকালে যখন মাছটিকে আনা হয় দিঘার মোহনা বাজারে, ততক্ষণে খবর চাউর হয়ে গিয়েছে। ব্যবসায়ীদের উৎসাহ তো ছিলই, আগাম খবর পেয়ে মাছটিকে দেখতে বাজারে ভিড় জমান বহু পর্যটকও।

৬০০ কেজি ওজনের ওই চিলশঙ্কর মাছটি কিনল কে? জানা গিয়েছে, বাজারে মাছটিতে নিলামে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেন ব্যবসায়ীরা। মাছটি কিনেছেন রবীন্দ্রনাথ শ্যামল নামে এক ব্যবসায়ী। ভারতে তো বটেই, বিদেশে এই চিলশঙ্কর মাছের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সাধারণভাবে খাওয়ার জন্য এই সামুদ্রিক মাছ বাজারে বিক্রি করা হয়।