শাজাহান আলি, মেদিনীপুর: খাবারের সন্ধানে যখন-তখন লোকালয়ে ঢুকে পড়ে হাতির দল। সাতসকালে বাড়ি থেকে বেরিয়ে বিপদে পড়লেন এক বৃদ্ধ। হাতির হামলার গুরুতর জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি তিনি। শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের ধেড়ুয়া এলাকায়।

আরও পড়ুন: কংক্রিটে বেদির নীচে 'প্রেমিকার' দেহ, প্রেমিকা হত্যায় উদয়ন দাসের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আক্রান্তের নাম সনাতন মুর্মু।  বাড়ি, পশ্চিম মেদিনীপুরে ধেড়ুয়া লাগোয়া বক্সি এলাকায়। জঙ্গল ঘেরা ওই এলাকায় হাতির আনাগোনা লেগেই থাকে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, বুধবার সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়ে জঙ্গল লাগোয়া রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন সনাতন। তখন আচমকাই সামনে চলে আসে একটি হাতি! পালাবার আর সুযোগ মেলেনি, ছুটে গিয়ে ওই বৃদ্ধকে শুড়ে তুলে হাতিটি আছাড় মারে। কাদা মাটির তলায় চাপা পড়ে যান তিনি। শেষপর্যন্ত হাতিটি জঙ্গলে ভিতরে চলে গেলে, সনাতনকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। তাঁর শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: প্রেমিকা নাবালিকা হওয়ায় বিয়ে করতে রাজি নয় প্রেমিক, হিঙ্গলগঞ্জে প্রেমিকের বাড়িতে ধর্নায় বসল নাবালিকা

মেদিনীপুর কিংবা লাগোয়া ঝাড়গ্রামের হাতির অভাব নেই। তবে ইদানিং খাবারে সন্ধানে হাতিদের লোকালয়ে ঢুকে পড়ার প্রবণতা বেড়েছে।  এর আগে মেদিনীপুর সদর ব্লকের সুন্দরলাটা  গ্রামে বেশ কয়েকটি হাতি ঢুকে পড়েছিল সন্ধ্যার পর। চাষের জমিতে সাবমার্সিবেল পাম্পের ক্ষয়ক্ষতি দেখতে গিয়ে বেঘোরে প্রাণ যায় এক যুবকের।