প্রতিবন্ধী নাবালিকাকে ধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য় ছড়াল পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুর গ্রামীণ থানার অন্তর্গত বলরামপুর এলাকায়। স্থানীয়দের প্রাথমিক অনুমান, ধর্ষণ করে খুনের ঘটনাটি ঘটেছে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে খড়গপুর গ্রামীণ থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন, চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে বিপত্তি, হাত ও পা কাটা গেল যুবকের

 
পুলিশি সূত্রে খবর, রাতে গ্রামের পাশে অনুষ্ঠান দেখে মামার বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল নাবালিকার। ওই গ্রামের প্রান্তে মঙ্গলবার রাতে একটি অর্কেস্ট্রার অনুষ্ঠান ছিল। মায়ের সঙ্গে সে ওই বছর চোদ্দোর প্রতিবন্ধী নাবালিকা অনুষ্ঠান দেখতে গিয়েছিল। রাত সাড়ে নটা নাগাদ মাকে জানায় সে মামা বাড়িতে চলে যাচ্ছে । মায়ের সঙ্গে কথা বলে পাশেই মামার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল সে। এরপর তার মা আর মেয়ের খোঁজ নেয়নি। বুধবার সকালে ওই নাবালিকার মামা বাড়ির লোকজন দেখা হলে জানায় সে নাকি রাতে ওখানে যায়নি। এরপরই দুই পরিবারের লোকজন খোঁজ শুরু করে দেয়। পরদিন সকালে মামার বাড়ির লোকেরা জানিয়ে দেয় সে সেখানে যায়নি। এরপরই খোঁজ করে গ্রামের প্রান্তে জঙ্গলের ধারে তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। 

আরও পড়ুন, বাঘ ঢুকেছে, মেছো বিড়াল দেখেই শোরগোল দুর্গাপুরে


সূত্রের খবর, নাবালিকা নিখোঁজ হওয়ার বেশ কিছুক্ষণ  পর গ্রামের প্রান্তে একটি জঙ্গলের ধারে গলায় ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। দেহের বর্ণনা ও পাশাপাশি এলাকার বিভিন্ন জিনিস দেখে স্থানীয়দের ধারণা হয় তাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। পাশেই পড়ে রয়েছে বহু মদের বোতল। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ হাজির হয়। স্থানীয়দের প্রাথমিক ধারণা তাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে খড়গপুর গ্রামীণ থানার পুলিশ।