শাহাজাহান আলি, মেদিনীপুর: ব্যস্ত রাস্তায় যান নিয়ন্ত্রণ করবে কে! পুলিশ তো দূর অস্ত, দেখা মেলেনি সিভিক ভলান্টিয়ারদেরও। তেলের ট্যাঙ্কারের ধাক্কায় প্রাণ গেল তিনজনের। গুরুতর জখম আরও একজন। পুজোর মুখে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটল পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুরে, ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে। এলাকায় শোকের ছায়া।

আরও পড়ুন: ব্যস্ত রাস্তায় দলছুট হাতির 'দাদাগিরি', তাড়া খেয়ে জখম ১, প্রাণরক্ষা অ্যাম্বুল্যান্স চালকের

রবিবার সকালের ঘটনা। খড়গপুর গ্রামীণ থানার লছমাপুর এলাকা ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে দুটি ডিভাইডারের মাঝে অপেক্ষা করছিলেন বেশ কয়েকজন। আর ঠিক তখনই খড়গপুরের দিক থেকে কলকাতার দিকে যাচ্ছিল একটি তেলের ট্যাঙ্কার। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, আচমকাই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্যাঙ্কারটি ডিভাইডারের মাঝে অপেক্ষারত বেশ কয়েকজনকে ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলে মারা যান তিনজন। গুরুতর জখম হন একজন। খবর পেয়ে এলাকা পৌঁছয় খড়গপুর গ্রামীণ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী।  জখম ব্যক্তি উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। তাঁর শারীরিক অবস্থা যথেষ্ট গুরুতর বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: রেলকর্মীর শ্লীলতাহানি-মারধরের অভিযোগ, দিদিকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত নির্যাতিতার ভাই

এদিকে এই দুর্ঘটনার পর প্রায় ঘণ্টা দুয়েক জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। বিপাকে পড়েন যাত্রীরা। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, যখন দুর্ঘটনা ঘটে, তখন জাতীয় সড়কে কোনও পুলিশকর্মীদের দেখা মেলেনি। এমনকী, লছমাপুরে চারজন সিভিক ভলান্টিয়ারের ডিউটিতে থাকার কথা ছিল। কিন্তু তাঁরা ঘটনাস্থলে ছিলেন না।