আন্তর্জাতিক চাপে পড়েই এবার মাসুদ আজহারের বিরুদ্ধে আরও কড়া পদক্ষেপ নিল পাকিস্তানI রাষ্ট্রপুঞ্জের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে জইশ সুপ্রিমোর যাবতীয় সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার জন্য সরকারি নির্দেশিকা জারি করল ইসলামাবাদI শুধু তাই নয়, মাসুদ আজহারের চলাফেরার উপরেও নিষেধাজ্ঞা বা 'ট্রাভেল ব্যান' জারি করেছে পাক প্রশাসনI

রাষ্ট্রপুঞ্জ মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি ঘোষণা করার পরে স্বভাবতই আরও চাপে পাক প্রশাসনI এতদিন মাসুদের বিরুদ্ধে লোক দেখানো পদক্ষেপ নেওয়ার অভিযোগ উঠলেও এবার রাষ্ট্রপুঞ্জের কড়া পদক্ষেপের পরে নড়েচড়ে বসতে বাধ্য হয়েছে ইমরান খান সরকার. রাষ্ট্রপুঞ্জের জারি করা নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে যাবতীয় পদক্ষেপ করা হবে বলেও দাবি করেছে পাক সরকারI এবার থেকে অস্ত্র কেনাবেচাও করতে পারবে মাসুদ আজহারI

ভারতের দীর্ঘদিনের দাবিকে স্বীকৃতি দিয়ে বুধবারই মাসুদকে আন্তর্জাতিক জঙ্গী হিসেবে ঘোষণা করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জেরI অতীতে বার বার এই ঘোষণায় বাধা দিলেও এবার আর মাসুদকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি হিসেবে ঘোষণার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি চিনI রাষ্ট্রপুঞ্জের এই ঘোষণার পরেই পাক বিদেশমন্ত্রক দাবি করেছে, রাষ্ট্রপুঞ্জের নির্দেশিকা কার্যকর করতে জইশ প্রধানের বিরুদ্ধে যাবতীয় পদক্ষেপ করার জন্য সরকারি আধিকারিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছেI 

পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় চল্লিশজন আধা সামরিক বাহিনীর হত্যার ঘটনাতেও দায় স্বীকার করেছিল মাসুদের সংগঠন জইশ ই মহম্মদI তার পরেও অবশ্য ভারতের দাবি মেনে মাসুদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিতে উদ্যোগী হয়নি পাক প্রশাসনI উল্টে ভারতের কাছে উপয়ুক্ত প্রমাণ চাওয়া হয়েছিল. পুলওয়ামা কাণ্ডের পরেই অবশ্য মাসুদকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি ঘোষণার জন্য রাষ্ট্রপুঞ্জে সক্রিয় হয়ে উঠেছিল আমেরিকা, ফ্রান্স এবং ব্রিটেনI শেষ পর্যন্ত চিন আর বাধা না দেওয়ায় ভারতের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ করে মাসুদকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি বলে ঘোষণা করা সম্ভব হয়I 

আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পড়ে অতীতেও অবশ্য সন্ত্রাসদমনে কড়া পদক্ষেপের কথা বলেছে পাকিস্তানI কিন্তু কার্যক্ষেত্রে তার প্রমাণ মেলেনি. এবার পাকিস্তানের এই প্রতিশ্রুতি শুধু মুখের কথা, নাকি সত্যিই মাসুদের বিরুদ্ধে তারা কড়া পদক্ষেপ করে, কিছুদিনের মধ্যেই হয়তো তার প্রমাণ পাওয়া যাবেI