সমাজের ট্যাবুকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এশিয়াডে পদকজয়ী অ্যাথলিট খোলাখুলি সমকামিতার কথা বললেন। অ্যাথলিট জানালেন গত পাঁচ বছর ধরে এই তরুণীর সঙ্গে সমকামী সম্পর্কে রয়েছেন তিনি। 

সুপ্রিম কোর্ট সমকামিতাকে বৈধতা দিলেও সমাজ এখনও এ বিষয়ে তির্যক দৃষ্টিতে তাকায়। ফলে এখনও অনেকে সমকামিতা নিয়ে সেভাবে খোলাখুলি কথা বলতে পারেন না। সমাজের তৈরি করা সেই ট্যাবুগুলিকে গুরুত্ব না দিয়ে তাই নিজের সমকামিতার কথা প্রকাশ্যে জানালেন দ্যুতি চাঁদ। তিনি বললেন, ওই তরুণীর সঙ্গে আগামীতে ভবিষ্যৎ এগিয়ে নিয়ে যেতে চান। 

সংবাদমাধ্যমের কাছে দ্যুতি জানান, গ্রামেরই এক তরুণীর সঙ্গে গত পাঁচ বছর ধরে সম্পর্কে রয়েছি আমি। সে  ভুবনেশ্বর কলেজের ছাত্রী। আমি য়খনই বাড়ি ফিরি ওর সঙ্গে সময় কাটাই। ওর সঙ্গেই জীবন কাটাতে চাই। 

সম্পর্ক নিয়ে দ্যুতি বলেন, ও আমার সোলমেট। প্রত্যেকেরই স্বাধীনতা রয়েছে নিজের পছন্দের মানুষের সঙ্গে সম্পর্কে থাকা। আমি সমলিঙ্গ সম্পর্কেই থাকব। 

কিন্তু দ্যুতির পরিবার তাঁর এই সম্পর্ক মেনে নিচ্ছেন না। সমকামিতার কথা জানার পরে ঘরছাড়া হতে হয়েছে তাঁকে। তাঁর দিদি, জেলে পাঠানোর হুমকিও দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন দ্যুতি চাঁদ।

দ্যুতি চাঁদ ২০১৮-এ রূপোর পদক পেয়েছিলেন। অল্পের জন্য হাতছাড়া হয়েছিল সোনার পদক। এখন তিনি অলিম্পিক ও বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ব্যাপারে অনুশীলন করছেন।