গত কয়েক দিন ধরে ভারতীয় সমাজ আলোড়িত হায়দরাবাদ গণধর্ষন কান্ড নিয়ে। সমাজের বিভিন্ন অংশের মানুষ নিজেদের প্রতিবাদের কথা জানিয়েছেন। রাস্তায় নেমেও শুরু হয়ে প্রতিবাদ।  দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন সবাই। গত কয়েকদিনের ঘটনা মনে করিয়ে দিচ্ছে দিল্লির নির্ভয়া অধ্যায়কে। সেই বিভীষিকা যেন আবার তাড়া করছে ভারতকে। দিল্লির সেই ঘটনার পরও কোনও বদল হয়নি ভারতীয় সমাজের একটা অংশে। কমেনি এই ধরনের অপরাধ প্রবণতা। এমনটাই মনে করছেন অনেকেই। এর মাঝেই টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়াক বিরাট কোহলিও প্রতিবাদে সরব। 

আরও পড়ুন - নির্যাতিতার স্কুটারেই ফের ঘটনাস্থলে ফিরেছিল দুই ধর্ষক, প্রকাশিত আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য

নিজের টুইটারে হায়দরাবাদ গণধর্ষণের প্রতিবার করেছন বিরাট। টিম ইন্ডিয়ার নেতা লিখেছেন, ‘হায়দরাবাদে যা ঘটেছে সেটা লজ্জার। সময় এসেছে সমাজের এমন অমানবিক ঘটনা বন্ধ করতে এবার আমাদের এগিয়ে এসে দায়িত্ব তুলে নিতে হবে।’ এরআগেও মহিলাদের বিরুদ্ধে হওয়া একাধিক ঘটনা নিয়ে সরব হয়েছিলেন বিরাট। বছর কয়েক আগে বেঙ্গালুরুতে প্রকাশ্য রাস্তা? মহিলদের শ্লীলতাহানীর ঘটনাতেও কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন বিরাট। এবার হায়দরাবাদের ঘটনাতেও চুপ করে বসে থাকতে নারাজ তিনি। 

 

 

আরও পড়ুন - ধর্ষণের মতো জঘন্য ঘটনাতেও ধর্মের তাস, ধিকৃত 'গর্বিত হিন্দু' অভিনেত্রী

হায়দরাবাদ গণধৰ্ষন কান্ডের প্রতিবাদে সরব হয়েছেন ভারতীয় ব্যাডমিন্টন তারকা সাইনা নেহওয়ালও। তিনিও টুইট করে এমন নৃশংস ঘটনরা প্রতিবাদ করেছেন। দোষীদের কঠোনর শাস্তির দাবি তুলেছেন তিনিও। 

 

আরও পড়ুন - খুন নয় আত্মহত্যা, হায়দরাবাদে দ্বিতীয় দগ্ধ দেহ উদ্ধারের ঘটনায় নিশ্চিন্ত পুলিশ

প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে দেশ জুড়ে। সেই প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন ক্রীড়া জগতের মানুষরাও। সবাই দাবি তুলছেন দোষীদের কঠোর শাস্তির। যে চারজন কে গ্রফতার করা হয়েছে তাদের টানা জিজ্ঞাসাদাব করছেন পুলিশ কর্তারা। একের পর এক নতুন তথ্য উঠে আসছে। কিন্তু এই সব কিছুর মাঝেও একটা প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে, এই সামিজক ব্যাধি সারবে কবে ? বিকৃত মানসিকতা কবে দুর করা যাবে সমাজ থেকে। বিরাটরা কিন্তু সভ্য সমজাকেই এগিয়েে আসার ডাক দিচ্ছেন।