ছয় বছর আগের একটা ঘটনা। ছেলের সঙ্গে স্কি করতে গিয়ে একটা বড় বিপদ ডেকে এনেছিলেন তিনি। যে গতি একদিন তাঁকে শিখরে পৌছে দিয়েছিল সেই গতিই তাঁকে জীবন থেকে দুরে সরিয়ে দিচ্ছেল। ছেলের সঙ্গে স্কি করতে গিয়ে মাথায় গুরতর চোট পান ফরর্মুলা ওয়ান সম্রাট মাইকেল শুমাখার। কোমায় আচ্ছন্ন হয়ে পরেন তিনি। তারপর থেকে তাঁর শারীরীক অবস্থা নিয়ে একাধিক জল্পনার কথা শোনা গেছে। তবে এবার হয়তো সব জল্পনার অবসান। এমনটাই খবর উঠে আসছে প্যারিস থেকে। ফরর্মুলা ওয়ানের রাজা নাকি জ্ঞান ফিরে পাচ্ছেন। 

বর্তমানে প্যারিসে চিকিত্সা চলছে শুমাখারের। দিন কয়েক আগেই তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। সেখানে স্টিম সেল ট্রিটমেন্ট চলছে মাইকেলের। আর তাতেই নাকি সুস্থ হয়ে উঠছেন তিনি। এমনটাই দাবি করছে ফারসী এক সংবাদ পত্র। সেই সংবাদ পত্র জানিয়ছে শুমির চিকিত্সার দেখভালের দায়িত্ব থাকা এক হাসপাতাল কর্মী নাকি জানিয়েছেন শুমাখার জ্ঞান ফিরে পাচ্ছেন। চিকিত্সকরাও আশাবাদী মাইকেল সুস্থ হয়ে উঠবেন। 

২০১৩ সালে আল্পস পর্বতে ছেলের সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছিলেন শুমাখার। সেখানেই স্কি করছিলেন ছেলের সঙ্গে। কিন্তু সেই ছুটি পর্ব যে এতবড় একটা ঝড় বয়ে আনবে সেটা কে জানত। মাইকেলের চোটের খবরে গোটা বিশ্ব থেকে এসেছিল শুভেচ্ছা বার্তা। কিন্তু এতদিন সেসব কিছু তাঁকে ছুঁয়ে যায়নি। হয়তো এবার ফিরে আসবেন শুমি, হয়তো জানতে পারবেন গত ছটা বছর ধরে কি ভাবে জীবন কেটেছে তাঁর। ফরর্মুলা ওয়ানের কিংবদন্তি। ৯০ টি গ্রাঁপি চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন, সাতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন শুমাখার।